অবশেষে বিগ ব্যাশেও ‘রিভিউ’, বদলে গেলো আরও অনেক নিয়ম

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:৫৬ পিএম, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২

এতদিন ধরে ডিআরএস (ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম) ছাড়াই চলছিল অস্ট্রেলিয়ার অন্যতম জনপ্রিয় টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট বিগ ব্যাশ লিগ। অবশেষে নতুন আসরে রিভিউ সিস্টেম অন্তর্ভুক্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আয়োজকরা। পুরুষ ও নারী- বিগ ব্যাশের উভয় টুর্নামেন্টেই রিভিউ নিতে পারবেন খেলোয়াড়রা।

এছাড়া বিগ ব্যাশের আরও অনেক নিয়মে পরিবর্তন আনা হয়েছে। ব্যাশ বুস্ট পয়েন্ট ও এক্স-ফ্যাক্টর বাতিল করে দেওয়া হয়েছে। তবে প্রথমবারের মতো ব্যবহৃত হতে চলেছে পাওয়ার সার্জ নিয়ম। বৃহস্পতিবার বিগ ব্যাশের এসব নিয়ম পরিবর্তনের ঘোষণা দিয়েছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)।

এখন থেকে প্রতি ইনিংসে ৭৯ মিনিটের মধ্যে ২০তম ওভার শুরু করতে হবে। আনুষঙ্গিক সবকিছু বিবেচনা করে এই সময়ের মধ্যে যত ওভার শেষ হবে, বাকি ওভারগুলোতে বৃত্তের বাইরে একজন কম ফিল্ডার নিয়ে খেলতে হবে। তবে এটি শুধুমাত্র পুরুষদের বিগ ব্যাশে কার্যকর হবে।

রিভিউয়ের ক্ষেত্রে প্রতি দল প্রতি ইনিংসে একটি করে অসফল রিভিউ নিতে পারবে। তবে সফল রিভিউ যত খুশি নেওয়া যাবে এবং আম্পায়ারের সিদ্ধান্তের ১৫ সেকেন্ডের মধ্যেই রিভিউ কল করতে হবে। রিভিউয়ে আম্পায়ার্স কল এলে সেই রিভিউ অক্ষত থেকে যাবে।

রিভিউ নিয়েও নারী বিগ ব্যাশে রয়েছে খানিক জটিলতা। এ টুর্নামেন্টের ৫৯ ম্যাচের মধ্যে ২৪টিতে রিভিউ থাকবে। কারণ এই ২৪ ম্যাচই সরাসরি টিভিতে দেখানোর ব্যবস্থা করেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। তবে বাকি ম্যাচগুলো ফক্সটেলের মাধ্যমে অনলাইনে স্ট্রিমিং করা যাবে।

প্রথমবারের মতো নারী বিগ ব্যাশে যোগ হচ্ছে পাওয়ার সার্জ নিয়ম। এই নিয়মের মধ্যে পাওয়ার প্লে’র ছয় ওভার দুই ভাগ করে দেওয়া হবে। শুরুতে চার ওভার থাকবে পাওয়ার প্লে। এরপর ব্যাটিং দলের ইচ্ছেমতো শেষ দশ ওভারের মধ্যে যেকোনো দুই ওভারে পাওয়ার প্লে নেওয়া যাবে। তখন বৃত্তের বাইরে থাকবেন দুজন ফিল্ডার।

এসএএস/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।