মেসির কারণে পা ভাঙতে গিয়েছিলেন আলভেজ!

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:২৬ পিএম, ০২ আগস্ট ২০২০

২০১০-২০১১ মৌসুমের কথা। সেবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিল লিওনেল মেসির বার্সেলোনা এবং স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসনের ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ইতিহাসে অন্যতম সেরা ফাইনাল মনে করা হয় ওই ম্যাচটিকে। যেখানে মেসি তার নিজের ক্যারিয়ারের অসাধারণ এক পারফরম্যান্স দেখিয়েছিলেন। যার এক দর্শক পূর্তি হলো কয়েকদিন আগে।

সেই ম্যাচে ম্যানইউকে ৩-১ গোলে হারিয়ে শিরোপা অর্জন করেছিল মেসির বার্সেলোনা। কিন্তু ওই ম্যাচের শুরুতে পেদ্রোর গোলে এগিয়ে গেলেও পরে ওয়েন রুনির গোলে সমতায় ফেরে ম্যানইউ।

ম্যাচের শ্বাসরূদ্ধকর এক পরিস্থিতিতে, ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধের শুরুর দিকে লিওনেল মেসির অসাধারণ এক গোলে লিড পায় বার্সা। ওই গোলের পর বার্সা ফুটবলার এবং সমর্থকদের উল্লাস ছিল দেখার মত। বক্সের বাইরে থেকে দুর্দান্ত এক শটে গোলটি করেছিলেন মেসি। ম্যানইউ গোলরক্ষক এডউইন ফন ডার সারের হাতে লাগার পরও সেটি জালে জড়িয়ে যায়।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের স্পন্সর লেইস এর সঙ্গে এক প্রমোশনাল ইভেন্টে যোগ দেন মেসি এবং সেই গোলকে তিনি বর্ণনা করেন, ক্যারিয়ারের অন্যতম সেরা গোল হিসেবে। ইনস্টাগ্রামে তিনি লেখেন, ‘ওটা ছিল চ্যাম্পিয়ন্স লিগে আমার অন্যতম সেরা একটি স্মৃতি। এ ধরনের স্মৃতি কখনোই ফিরে আসে না।’

ইনস্টাগ্রামে মেসির এই পোস্টের পর ভক্ত-সমর্থকরা নানা মন্তব্যে ভরিয়ে তোলেন কমেন্টস বক্স। তবে সেখানে একটি মন্তব্য ছিল চোখে পড়ার মত। মেসির সাবেক সতীর্থ, ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার দানি আলভেজ মেসির ওই গোলের পর এতটাই উল্লসিত হয়েছিলেন যে, পাগলের মত আচরণ করতে গিয়ে একটি মাইক্রোফেনে লাথি মেরে বসেন। ভাগ্য ভালো যে তার পা ভাঙেনি, অল্পের ওপর দিয়ে গেছে। আলভেজ সেই স্মৃতিই স্মরণ করলেন মেসির সঙ্গে।

মেসির পোস্টে মজা করে মন্তব্য করতে গিয়ে মজা করে লেখেন, ‘আমি তো প্রায় আমার পা’টাই ভেঙে ফেলছিলাম, ওই বাজে মাইক্রোফোনটার সঙ্গে। পুরো ব্যাপারটা ঘটেছে শুধু তোমার কারণেই।’ সঙ্গে একটি হাসির ইমোজিও যোগ করে দেন আলভেজ।

আইএইচএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]