নেপালের বিপক্ষে জয়ে ফেরার প্রত্যাশা

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:৪৭ পিএম, ২২ অক্টোবর ২০২০

আন্তর্জাতিক ফুটবলে নেপালের বিপক্ষে বাংলাদেশের সাফল্যের পাল্লাই ভারি। কিন্তু সর্বশেষ দুইবারের সাক্ষাতে লাল-সবুজ জার্সিধারীদের রয়েছে তেঁতো স্বাদ। দুই ম্যাচেই হেরেছে বাংলাদেশ। একটি নিরপেক্ষ ভেন্যুতে, অন্যটি ঘরের মাঠে।

এস গেমসে অনূর্ধ্ব-২৩ দলের লড়াই ধরলে টানা হার তিনটি। এই হারগুলো ভুলে হিমালয়ের দেশটির বিপক্ষে জয়ের ফেরার প্রত্যয় নিয়েই শুক্রবার প্রস্তুতি শুরু করবে জেমি ডে’র শিষ্যরা।

দক্ষিণ এশিয়ার ফুটবলে এক সময় নেপালের জালে গুনে গুনে গোল দিতো বাংলাদেশ। কিন্তু দিন বদলেছে নেপালিদের। এখন তারা কেবল বাংলাদেশই নয়, ভারতকেও চোখ রাঙায়। লাল জার্সিধারীদের বলে-কয়ে হারানোর দিন শেষ। এখন মাঠে এ অঞ্চলের শক্তিশালী ফুটবল দল নেপাল।

করোনাভাইরাসের কারণে অনেকদিন আন্তর্জাতিক ম্যাচের বাইরে ফুটবল দল। নেপালের বিপক্ষে দুটি ফিফা ফ্রেন্ডলি ম্যাচ দিয়ে ফুটবলে ফিরবে বাংলাদেশ। ম্যাচ দুটি হবে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ১৩ ও ১৭ নভেম্বর। এর আগে বাংলাদেশ সর্বশেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছে গত ২৩ জানুয়ারি ঢাকায় বুরুন্ডির বিপক্ষে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে।

কোভিড-১৯ এর কারণে বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাইয়ের গ্রুপপর্বের ম্যাচগুলো ২০২১ সাল পর্যন্ত পিছিয়ে যাওয়ায় আন্তর্জাতিক থেকে বাইরে রয়েছে বাংলাদেশ। বাফুফের নতুন কমিটি তাই জাতীয় দলের জন্য দুটি আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচের আয়োজন করছে।

নেপালের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ফুটবলে ফিরছে বাংলাদেশ। কিন্তু নেপালের বিপক্ষে জয়ে কি ফিরতে পারবে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা? ফুটবল অঙ্গনে এ প্রশ্ন উঁকি দিচ্ছে অনেকের মধ্যে। বাংলাদেশ জিতবেই-এ কথা সাহস করে বলার মতো অবস্থা নেই। এই তো দুই বছর আগেই বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে এই নেপালের কাছে ২-০ গোলে হেরে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিয়েছিল বাংলাদেশ।

২০১৩ সালে ভারতে অনুষ্ঠিত সাফ চ্যাম্পিয়নশিপেও একই ব্যবধানে নেপালের কাছে হেরেছিল বাংলাদেশ। আর গত বছর কাঠমান্ডুতে এসএ গেমস ফুটবলে অনূর্ধ্ব-২৩ দলের লড়াইয়ে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে নেপাল জিতেছিল ১-০ গোলে।

জাতীয় ও অনূর্ধ্ব-২৩ দল মিলিয়ে নেপালের বিরুদ্ধে সর্বশেষ তিন ম্যাচেই হার। ১৩ ও ১৭ নভেম্বর ঘরের মাঠের দুই প্রীতি ম্যাচে সেই হারের বৃত্ত থেকে জয়ের রাস্তায় বের হতে পারবে কি না, সেটাই প্রশ্ন।

আরআই/এমএমআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]