খাটিয়ায় প্রতীকী মরদেহ, কাফনের কাপড় পরে উপাচার্যের পদত্যাগ দাবি

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ০৪:৩৫ পিএম, ২২ জানুয়ারি ২০২২

খাটিয়ায় মরদেহ সামনে রেখে বসে আছেন এক শিক্ষার্থী। তার পেছনে কয়েক সারিতে দাঁড়ানো শিক্ষার্থীরা। তাদের সবার গায়ে জড়ানো কাফনের কাপড়। কপালেও সাদা পট্টি বাঁধা।

এভাবেই প্রতীকী মরদেহ সামনে রেখে ও কাফনের কাপড়ে পরে উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলন করেছেন সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) শিক্ষার্থীরা।

শনিবার (২২ জানুয়ারি) বিকেল ৩টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের গোলচত্বর থেকে কাফনের কাপড় পরে মৌন মিছিল বের করেন শিক্ষার্থীরা। ক্যাম্পাসের বিভিন্ন জায়গা প্রদক্ষিণ করে আবার একই স্থানে এসে শেষ হয়।

এসময় শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘আমরা কাফনের কাপড় এখন প্রতীকীভাবে গায়ে জড়ালেও অল্প সময়ের মধ্যে তা আমাদের অনশনরত শিক্ষার্থীদের গায়ে জড়াবে। আপনি (উপাচার্য) আমাদের দাবি মেনে নিন। ২৪টা প্রাণের চেয়ে একটা চেয়ারের মূল্য বেশি না। আপনি পদত্যাগ করুন।’

তারা আরও বলেন, ‘স্বৈরাচার উপাচার্যের জন্য যদি মরতে হয়, তাহলে শুধু ২৪ জন কেন, আমরা সবাই মরতে রাজি। উপাচার্য পদত্যাগ না করা পর্যন্ত আমরা আন্দোলন ছাড়বো না। স্বৈরাচারী উপাচার্যের পদত্যাগের জন্য আমরা জীবন দিতে প্রস্তুত।’

Sylhet-(2).jpg

পুলিশের লাঠিচার্জের ঘটনায় উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগের দাবিতে বুধবার (১৮ জানুয়ারি) বিকেল ৩টা থেকে অনশন করছেন ২৪ শিক্ষার্থী। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাসভবনের সামনে কিলো রোডে অবস্থান নিয়ে অনশন করছেন তারা। এরই মধ্যে অনশনের প্রায় ৭২ ঘণ্টা পার হয়ে গেছে। হাসপাতালে ভর্তি থাকা সত্ত্বেও এখন পর্যন্ত কেউ অনশন ভাঙেননি।

এরই মধ্যে অনশনরত শিক্ষার্থীদের ১৬ জন অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি আছেন। বাকি শিক্ষার্থীদের শারীরিক অবস্থা অনেকটা দুর্বল হওয়ায় প্রায় সবাইকেই স্যালাইন ও ভিটামিন সাপ্লিমেন্ট দেওয়া হচ্ছে।

এদিকে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির সঙ্গে কথা বলতে ঢাকায় গেছেন শিক্ষকদের একটি প্রতিনিধি দল

শুক্রবার (২১ জানুয়ারি) রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেন শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. তুলসী কুমার দাস।

তিনি বলেন, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির সঙ্গে কথা বলতে এরই মধ্যে পাঁচ সদস্যের একটি দল ঢাকায় পৌঁছেছে। শনিবার (আজ) শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনায় বসার কথা রয়েছে।

এসআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]