রক্ষক যখন ভক্ষক!

উপজেলা প্রতিনিধি ভৈরব ( কিশোরগঞ্জ)
প্রকাশিত: ০৩:৪৬ পিএম, ২৫ নভেম্বর ২০১৭
রক্ষক যখন ভক্ষক!

বিপুল পরিমাণ মাদকসহ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর ভৈরব সার্কেলের পরিদর্শক কামনাশীষ সরকারকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার সন্ধ্যায় তার অফিস থেকে তাকে আটক করা হয়। এ সময় ওই অফিস থেকে ৬৮ কেজি গাঁজা ও ২৪ বোতল ভারতীয় ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, কামনাশীষের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরে অভিযোগ- তিনি ভৈরবে মাদক ব্যবসায়ীদের সঙ্গে আঁতাত করে গোপনে তাদেরকে ব্যবসার সুযোগ দিয়ে অবৈধ ও অনৈতিক সুবিধা ভোগ করতেন। এরই প্রেক্ষিতে কিশোরগঞ্জ জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের সহকারী পরিচালক মো. আনোয়ার হোসেন শনিবার ভৈরব সার্কেল অফিসের কর্মচারী সূত্রে খবর পান- ওই অফিসে বিপুল পরিমাণ অবৈধ ও সিজার লিস্টবিহীন মাদক গোপনে বিক্রি হবে। খবর পেয়ে তিনি বিকেলে ভৈরব অফিসে ছুটে যান। এ সময় অফিসে ঢুকে তিনি সিজার লিস্ট খাতা তলব করেন। কিন্তু পরিদর্শক কামনাশীষ সরকার খাতা না দেখিয়ে সহকারী পরিচালকের সঙ্গে তর্কে জড়িয়ে পড়েন।

পরে কর্মচারীদের সহায়তায় অফিসের স্টোর রুম থেকে ৬৮ কেজি গাঁজা ও ২৪ বোতল ভারতীয় ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়। ঘটনার সময় পরিদর্শকের সঙ্গে সহকারী পরিচালকের হাতাহাতিও হয়েছে বলে কর্মচারীরা জানান। এক পর্যায়ে সহকারী পরিচালক ভৈরব থানায় খবর দিয়ে অফিসে পুলিশ এনে তাকে আটক করান।

জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের সহকারী পরিচালক মো. আনোয়ার হোসেন জানান, ভৈরব সার্কেল অফিসে মজুদ রাখা মাদকের কোনো সিজার লিস্ট পাওয়া যায়নি। অফিসে এসে পরির্দশক কামনাশীষকে মাদকসহ আটকের পর পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় মাদক আইনে থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও তিনি জানান।

ভৈরব থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মোখলেছুর রহমান বলেন, ঘটনার ব্যাপারে আমি কিছুই জানি না। তবে জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের সহকারী পরিচালক পুলিশের সহায়তা চাইলে আমি পুলিশ দিয়ে সহযোগিতা করেছি।

আসাদুজ্জামান ফারুক/আরএআর/জেআইএম