ডিএনসিসি’র নির্বাচন স্থগিতাদেশে আওয়ামী লীগ হতাশ : কাদের

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি নোয়াখালী
প্রকাশিত: ০৭:২৭ পিএম, ১৮ জানুয়ারি ২০১৮
ডিএনসিসি’র নির্বাচন স্থগিতাদেশে আওয়ামী লীগ হতাশ : কাদের

ডিএনসিসি’র উপ-নির্বাচন নিয়ে আদালতের দেয়া স্থগিতাদেশে আওয়ামী লীগ হতাশ হয়েছে বলে জানিয়েছেন দলের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, এটি নির্বাচনের বছর। আমরা চেয়েছিলাম, এ নির্বাচন দিয়ে শুভ সূচনা করতে। কিন্তু আমাদের নিশ্চিত বিজয় আমরা পেলাম না।

বৃহস্পতিবার বিকেলে নোয়াখালীর প্রধান বাণিজ্যিক কেন্দ্র চৌমুহনী ও চৌরাস্তার বিভিন্ন সড়কের উন্নয়ন কাজ পরিদর্শনে এসে সংবাদ সম্মেলন করে এসব কথা বলেন সেতুমন্ত্রী।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচন নিয়ে আদালতে রিটকারী বিএনপির লোক উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিএনপির প্রার্থীর বদনাম আছে। তারা নির্বাচন নিয়ে শঙ্কিত ছিল। এ জন্য বিএনপি ষড়যন্ত্রের আশ্রয় নিয়ে এখন উল্টাপাল্টা কথা বলছে। কিন্তু আওয়ামী লীগের প্রার্থীর কোনো বদনাম নেই। আমরা ক্লিন ইমেজের প্রার্থী দিয়েছি। আমরা বিজয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী।

সেতুমন্ত্রী বলেন, নোয়াখালীর দুঃখ নোয়াখালী খাল পুনঃখননসহ নির্বাচনী সবগুলো প্রতিশ্রুতি পূরণ করেছেন প্রধানমন্ত্রী। ফোর লেইনসহ আরও কিছু উন্নয়মূলক কাজের শুরু হয়েছে। সেগুলোর মধ্য অনেকগুলো এ সরকারের আমলেই শেষ হবে।

তিনি বলেন, বিএনপির আমলে এ জেলার তেমন কোনো উন্নয়ন হয়নি। যেটি নিয়ে তারা ভোটারদের কাছে গিয়ে ভোট চাইবেন। মওদুদ আহম্মেদের বাড়ির সামনের রাস্তাটিও এ সরকারের আমলে করা হয়েছে।

নোংরা ভাষায় কথা বলা লোককে বিএনপির হাইকমান্ড পছন্দ করে মন্তব্য করে সেতুমন্ত্রী বলেন, বিএনপির নোংরা ভাষা হলো সরকারের বিরুদ্ধে। তাদের দলের মধ্যে বেশ কয়েকজন নেতা আছেন। যারা সব সময় হাইকমান্ডের মন পেতে নোংরা ভাষায় কথা বলেন।

এ সময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) উদয়ন দেওয়ান, পুলিশ সুপার ইলিয়াছ শরীফ, বেগমগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ফরিদা খানম, চৌমুহনী পৌরসভার মেয়র আক্তার হোসেন ফয়সল, কবিরহাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল আমিন রুমি প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মিজানুর রহমান/এএম/আইআই