মোবাইলে প্রশ্ন ও উত্তরপত্র, ৭ পরীক্ষার্থী আটক

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি দিনাজপুর
প্রকাশিত: ০৯:১০ পিএম, ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ | আপডেট: ০৯:১২ পিএম, ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮
মোবাইলে প্রশ্ন ও উত্তরপত্র, ৭ পরীক্ষার্থী আটক
প্রতীকী ছবি

দিনাজপুরের তিন উপজেলায় মোবাইলে প্রশ্ন এবং উত্তরপত্র রাখার অভিযোগে সাত এসএসসি পরীক্ষার্থীকে আটক করা হয়েছে। মঙ্গলবার পদার্থ বিজ্ঞান, ইতিহাস ও ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিষয়ের পরীক্ষা শুরুর আগে বিরল, বিরামপুর ও বোচাগঞ্জ উপজেলা থেকে মোবাইলসহ তাদেরকে আটক করা হয়।

জানা গেছে, সকাল ৯টায় পরীক্ষা শুরু হওয়ার আগে বিরলের ধুকুরঝাড়ী দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের মূল গেটের বাইরে উপজেলার ফরক্কাবাদ ইউপির ফরক্কাবাদ এন আই স্কুল অ্যান্ড কলেজের ছাত্র ও মাঝাপাড়া গ্রামের আবুল কালাম আজাদের ছেলে নুর ইসলাম নয়ন (রোল নং ২৫০৭০৩), মোহনা মঙ্গলপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র ও মঙ্গলপুর ইউপির ধনগ্রামের শাহীনুর ইসলামের ছেলে মাহফুজ আলম (রোল নং ২৫০৭৯২) ও মোহনপুর গ্রামের আনছারুল আজিমের ছেলে রিয়াদ উল ইসলাম (রোল নং ২৫০৮০০) মোবাইল ফোনে প্রশ্ন ও উত্তরপত্র দেখার সময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) এ বি এম রওশন কবীর তাদেরকে মোবাইল ফোনসহ হাতেনাতে আটক করেন।

মোবাইল ফোনে যোগাযোগের মাধ্যমে পরীক্ষার প্রশ্ন ও উত্তরপত্র সরবরাহের ঘটনায় আটকদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এ বিষয়ে ধুকুরঝাড়ী দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের কেন্দ্র সচিব বিমল চন্দ্র সরকার বলেন, পরীক্ষা শুরুর ঘণ্টা খানেক আগে তারা স্কুলের সামনে ধুকুরঝাড়ী বাজারের মোবাইল ফোনে প্রশ্নপত্র দেখার সময় ম্যাজিস্ট্রেট ওই তিন ছাত্রকে আটক করেন। তারা পরীক্ষা কেন্দ্রে না থাকায় আমি অনুপস্থিত দেখাই।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার তৈয়ব আলী জানান, তিনি বাদী হয়ে আটকদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট ধারায় মামলা দায়ের করেছেন।

অপরদিকে বোচাগঞ্জ উপজেলার সেতাবগঞ্জ মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের সামনে মোবাইল ফোনে প্রশ্ন ও উত্তরপত্র দেখার সময় বোচাগঞ্জ উপজেলার আনোয়ারা ধদইর গ্রামের আব্দুর রশিদের ছেলে ওমর ফারুককে (রোল নং- ২২১৭৪৯) উপজেলা নির্বাহী অফিসার গোলাম সারাওয়ার মোর্শেদ মোবাইলসহ ধরে কেন্দ্রে নিয়ে যান। পরীক্ষা শুরু হলে প্রশ্নপত্র মিলে যাওয়ায় তাকে আটক করা হয়। তার বিরুদ্ধে বোচাগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এছাড়াও বিরামপুর উপজেলায় এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্ন পত্র ফাঁসের জের ধরে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার সময় বিরামপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান গেটের ফটক থেকে বিজ্ঞান বিভাগের এসএসসি পরীক্ষার্থী কলেজ বাজার এলাকার মনিরুজ্জামানের ছেলে নাজমুল সাকিব (১৭), শৌলাহার গ্রামের আমিনুল ইসলামের ছেলে শামীম আহমেদ সবুজ (১৬), মুকুন্দপুর ইউনিয়নের উড়ুম্বা গ্রামের প্রেমদাস চন্দ্রের ছেলে বিজয় চন্দ্রকে (১৬) মোবাইলে ইন্টারনেটের মাধ্যমে পরীক্ষার প্রশ্নপত্র সার্চ করে দেখার সময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাকে হাতেনাতে আটক করে।

কেন্দ্র সচিব রইচ উদ্দিন পাটোয়ারী জানান, ২শ গজের মধ্যে আজকের পদার্থ বিজ্ঞান, ইতিহাস ও ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিষয়ের পরীক্ষার প্রশ্নপত্র মোবাইল ফোনে নেটের মাধ্যমে সার্চ করে দেখার অপরাধে আটকদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

বিরামপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোখলেছুর রহমান মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ তৌহিদুর রহমান জানান, পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে একটি স্ক্রিনটাচ মোবাইল ফোন জব্দ করে থানায় জমা দেয়া হয়েছে।

এমদাদুল হক মিলন/আরএআর/পিআর