রাতে প্রেমিকার সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে শ্রীঘরে প্রেমিক

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি পাবনা
প্রকাশিত: ০৭:১৯ পিএম, ১৭ মে ২০১৮
প্রতীকী ছবি

পাবনার ভাঙ্গুড়ায় রাতে কিশোরী প্রেমিকার সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে ধরা পড়ে নাজমুল হোসেন (১৭) নামে কিশোর প্রেমিক এখন কারাগারে। বুধবার রাতে ওই কিশোরীর বাবা ভাঙ্গুড়া থানায় নাজমুলের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়েরের পর বৃহস্পতিবার তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

নাজমুল পাবনার সাঁথিয়া উপজেলার বিঞ্চপুর গ্রামের আব্দুল জব্বারের ছেলে।

কিশোরীর পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ভাঙ্গুড়া পৌর সদরের হাসপাতাল পাড়ার জহুরুল ইসলামের অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া মেয়ে জলি খাতুনের সঙ্গে জহুরুলের দেড় বছর ধরে মোবাইলের মাধ্যমে প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। একপর্যায়ে প্রেমিকা জলির আমন্ত্রণে মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে জহুরুল ভাঙ্গুড়ায় তার বাড়িতে লুকিয়ে দেখা করতে আসে। পরে রাত সাড়ে ১১ টার দিকে জলির বাবা-মা বিষয়টি টের পেয়ে আপত্তিকর অবস্থায় জহুরুলকে আটক করে তার বাড়িতে খবর দেয়।

পরদিন বুধবার জহুরুলের বাবাসহ পরিবারের অন্যরা আসলে স্থানীয় মাতব্বরদের উপস্থিতিতে দুই পক্ষের সম্মতিতে দুইজনের বিয়ের সিদ্ধান্ত হয়। দিনভর বিয়ের সকল আয়োজনও শেষ করা হয়। কিন্তু সন্ধ্যায় বিয়ের আগ মুহূর্তে দেনমোহর নিয়ে উভয়পক্ষের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হলে জহুরুলের পরিবার ছেলেকে বিয়ে না দিয়ে চলে যেতে চায়। এ সময় কিশোরীর পরিবার এলাকাবাসীর সহায়তায় তাদেরকে আটকে রেখে মেয়ের শ্লীলতাহানির অভিযোগে থানায় মামলা করে জহুরুলকে পুলিশে দেয়।

এ বিষয়ে ওই কিশোরের বাবা বলেন, ছেলে প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত তারা বিয়ে দেবেন না। প্রয়োজনে তারা মামলা চালিয়ে যাবেন।

মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে ভাঙ্গুড়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিন কামাল জানান, আটক কিশোরকে বৃহস্পতিবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। অপরদিকে কিশোরীর জবানবন্দি রেকর্ডের জন্য ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে পাঠানো হয়েছে।

একে জামান/আরএআর/পিআর