রূপগঞ্জে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ : আহত ১৫

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ)
প্রকাশিত: ১২:৩২ পিএম, ১৯ এপ্রিল ২০২১

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে দুইপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছে। তাদের মধ্যে একজনকে গুরুতর অবস্থায় ঢাকা মেডিকেলে নেয়া হয়েছে।

রোববার (১৮ এপ্রিল) রাতে উপজেলার গোলাকান্দাইল ইউনিয়নের নতুন বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী জানায়, সম্প্রতি উপজেলার মাছিমপুর এলাকার দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী শওকত আলী রিয়াজ প্রেম করে বিয়ে করেন। পরিবার তাদের মেনে না নেয়ায় স্ত্রীকে নিয়ে নতুন বাজার এলাকায় ভাড়া বাড়িতে উঠেন রিয়াজ। এসময় স্থানীয় রনি, মাসুদ, মাসুম, শরিফ, আরিফের সঙ্গে বিরোধ শুরু হয়।সমস্যা ভেবে রিয়াজ কিছু দিন আগে বাসা ছেড়ে চলে যায়। আসবাবপত্র নিতে রোববার সন্ধ্যায় মোটরসাইকেলে স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে ভাড়া বাসায় ঢুকলে মাসুম বিল্লাহ বাহিনীর লোকজন রিয়াজকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। এসময় চিৎকার শুনে
লোকজন এগিয়ে আসলে তারা পালিয়ে যায়। পরে তাকে স্থানীয় ইউএস-বাংলা হাসপাতালে নেয়া হলে দায়িত্বরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজে রেফার করেন। বর্তমানে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক।

jagonews24

শওকত আলী রিয়াজ আহতের খবর ছড়িয়ে পড়লে তার লোকজন রাত ১০টায় দেশীয় অস্ত্র নিয়ে প্রতিপক্ষের উপর হামলা চালায়। এসময় রূপগঞ্জে মাসুম বিল্লাহ বাহিনী ও রিয়াজের স্বজনদের সংঘর্ষে উভয় পক্ষের অন্তত ১৫ জন আহত হয়।

স্থানীয় চিকিৎসক সাব্বির হোসেন বলেন, কিছু না বলে দোকানে ঢুকেই ভাংচুর করে চলে যায়। গোলাকান্দাইল ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের মেম্বার নাসির উদ্দীন বলেন, সন্ত্রাসীরা আমার ভাই নূর আলমের বাড়িতে ঢুকে ঘরের জানালা দরজা ভেঙে চলে যায়। তবে তাদের কাউকে চিনতে পারিনি।

ভুলতা ফাঁড়ির এসআই মেহেদি হাসান জানান, আমরা যাওয়ার আগেই সন্ত্রাসীরা পালিয়েছে। রিয়াজসহ চার-পাঁচজন আহত হওয়ার খবর শুনেছি। মূলত মাসুমবিল্লাহ ও রিয়াজ বাহিনী এ তাণ্ডব চালিয়েছে।

রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)জসিম উদ্দিন বলেন, তদন্ত
চলছে, মামলা প্রক্রিয়াধীন। জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হবে।

মীর আব্দুল আলীম/এএইচ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]