হেফাজতের মামলায় আমার লোকদের গ্রেফতার করা হচ্ছে: তৈমূর

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নারায়ণগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৭:৩৪ পিএম, ১৫ জানুয়ারি ২০২২
সংবাদ সম্মেলনে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার

হাতি প্রতীকের সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের যারা বিভিন্ন কাজের দায়িত্বে আছেন তাদের গ্রেফতার করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার।

তিনি বলেন, সবাইকে হেফাজতের মামলায় গ্রেফতার করা হচ্ছে। এ পরিস্থিতিতে ডিসি-এসপি সাহেব বলেন আমি অভিযোগ করিনি। এখানে সই করা কাগজ আছে আমার কাছে।

শনিবার (১৫ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় শহরের মাসদাইর এলাকার মজলুম মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন তৈমূর আলম খন্দকার।

স্বতন্ত্র এ মেয়র প্রার্থী বলেন, ‘যাদের কাছে আমাদের অভিযোগ করার কথা তারাই নির্বাচনকে কলুষিত করছেন এবং সুষ্ঠু পরিবেশে বাধা সৃষ্টি করছেন। আমার বাসার সিসিটিভি ফুটেজ চেক করেন এবং যাদের গ্রেফতার করা হয়েছে তাদের দেখেন। দেখবেন তাদের বেছে বেছে গ্রেফতার করা হয়েছে।’

তৈমূর বলেন, ‘আদালত থেকে আমি কাগজ নিয়ে এসেছি। গত বছরের হেফাজতের মামলায় তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে। এখন দেখা যায় ছাত্রলীগও হেফাজতের মামলার আসামি হিন্দুও হেফাজতের মামলার আসামি। মানে হিন্দুরাও হেফাজত করে।’

ঘণ্টাখানেক আগে নিজের চিফ এজেন্ট এটিএম কামালের বাড়ি তল্লাশি করা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘কামাল কি মাদক ব্যবসায়ী না সন্ত্রাসী? সিদ্ধিরগঞ্জ থানা বিএনপির সাবেক সভাপতির বাড়িতেও তারা গেছে। যে আমাকে সমর্থন করছে তার বাড়িতেই যাচ্ছে। আমরা এতে ভীত না। আমরা মাঠে থাকবো। আমার মৃত্যু হলে নির্বাচনের মাঠেই হবে।’

আচরণবিধি লঙ্ঘনের ব্যাপারে তৈমূর আলম বলেন, ‘আমি বহুবার অভিযোগ করেছি। আওয়ামী লীগের প্রার্থী আজ বলেছেন চারদিকে ষড়যন্ত্র, আমি একা হয়ে যাচ্ছি। এর মানে তার জনসমর্থন নেই। তাদের একমাত্র ক্ষমতা মামলা। দুই টাকার বলপেন, চার আনার কাগজ আর মামলাই তাদের এখন মূল ভরসা। আমার বিরুদ্ধে অসংখ্য মামলা আছে। আমি দেশনেত্রী ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর একসঙ্গে জেল খেটেছি।’

ভোটার-সমর্থকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘আপনারা ভয় পাবেন না। আমার নেতাকর্মীরা মাঠে থাকবে, আমিও মাঠে থাকবো। আমরা মাঠ থেকে প্রতিরোধ করবো। বাংলাদেশ বিশ্ব আইনের বাইরে নয়।’

মোবাশ্বির শ্রাবণ/এসআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]