তৌকির-মৌসুমীর ‘কাঁদে মন কাঁদে ভালোবাসা’

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:০২ পিএম, ১৩ জুলাই ২০১৮

আসছে ঈদে জুটি বেঁধে হাজির হতে যাচ্ছেন জনপ্রিয় অভিনেতা ও নির্মাতা তৌকির আহমেদ এবং প্রিয়দর্শিনী মৌসুমী। চলচ্চিত্র নির্মাণে বেশ ব্যস্ত থাকায় অভিনয়ে আগের মতো সময়ও দেয়া হয়না তৌকির আহমেদের। এদিকে প্রিয়দর্শিনী মৌসুমী এখনো চলচ্চিত্রেই নিয়মিত অভিনয় করছেন। মাঝে মাঝে বিশেষ দিবসের নাটক কিংবা টেলিফিল্মে দেখা মিলে তার। ছোট পর্দায় বিশেষ দিবসে উপস্থিতি মিললেও গেলো ঈদে দেখা যায়নি মৌসুমীকে।

তবে আসছে ঈদেই ছোট পর্দায় দেখা মিলতে যাচ্ছে ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় এ অভিনেত্রীর। ১১ জুলাই রাজধানীর উত্তরায় নতুন একটি টেলিফিল্মের শুটিং শুরু হয়। শ্রাবণ চক্রবর্তী দিপু’র রচনায় ও নির্দেশনায় ‘কাঁদে মন কাঁদে ভালোবাসা’ নামক এই টেলিফিল্মের বৃহস্পতিবার শেষ করলেন তিনি। আর এই টেলিফিল্মে অপু ও বর্ষা চরিত্রে জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন তৌকীর আহমেদ ও মৌসুমী।

টেলিফিল্মের গল্পে দেখা যাবে, বর্ষা ধনী বাবার একমাত্র মেয়ে। ভালোবেসে বিয়ে করে সাধারণ এক ছেলে অপুকে। কিন্তু অপুকে বিয়ে করার কারণে বাবার বাড়ি থেকে সারা জীবনের জন্য চলে আসতে হয় বর্ষাকে। সংসার জীবনে পথ চলতে চলতে এক সময় অপু বর্ষাকে এড়িয়ে চলতে শুরু করে। বর্ষার জীবন থেকে অপু নিজেকে চিরদিনের জন্য সরিয়ে নিতে চায়। এমনই গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে টেলিছবিটি।

তৌকীর আহমেদ বলেন, ‘এই টেলিছবির গল্পটাই মূলত আমাকে এই কাজটি করতে আগ্রহ জন্মায়। মৌসুমীর সঙ্গে আমার খুব বেশি একটা কাজ করা হয় নি। যে কয়েকটাই কাজ করেছি তার সঙ্গে তাতে আমি বলবো নিঃসন্দেহে মৌসুমী একজন বড় মাপের অভিনেত্রী। যেহেতু গল্পটার মধ্যে আবেগের বিষয় আছে তাই আমার এবং মৌসুমীর আন্তরিক অভিনয়ের মধ্যদিয়ে সেই আবেগ যথাযথভাবে তুলে ধরার চেষ্টা করেছেন পরিচালক। আমি খুব আশাবাদী কাজটি নিয়ে।’

মৌসুমী বলেন,‘ তৌকীর ভাই নিঃসন্দেহে একজন ভালো মনের মানুষ। সহশিল্পীকে যথেষ্ট সম্মান দিয়ে কাজ করেন তিনি। অবশ্যই একজন গুণী অভিনেতা এবং নির্মাতাও বটে। তার মনটা অনেক বড়। যে কারণে তারসঙ্গে কাজ করার সময় তার প্রতি অনেক শ্রদ্ধা নিয়েই কাজটা করার চেষ্টা করি। দিপুর লেখা গল্পের কারণেই মূলত আমাকে এই টেলিফিল্মে কাজ করার জন্য মন থেকে অনুপ্রেরণা পেয়েছি। আশা করছি দর্শকেরও ভালো লাগবে।’

আসছে ঈদে একটি চ্যানেলে টেলিছবিটি প্রচার করা হবে।

আইএন/এমএবি/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]