চঞ্চল-মোশাররফ ও পরীমনি, কেউ নেই সৃজিতের ওয়েব সিরিজে

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:০১ পিএম, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

বাংলাদেশের আলোচিত লেখক নাজিম উদ্দিনের পাঠকপ্রিয় উপন্যাস ‘রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি’। ২০১৫ সালে এটি প্রকাশ হয় বইমেলায়। থ্রিলার ও অ্যাডভেঞ্চারধর্মী এ উপন্যাস অবলম্বনে কাজ করতে আগ্রহ দেখিয়েছিলেন কলকাতার চলচ্চিত্র পরিচালক সৃজিত মুখার্জি। প্রথমদিকে উপন্যাসটির কেন্দ্রীয় চরিত্র মুশকান জুবেরীর ভূমিকায় তার প্রথম পছন্দ ছিল বাংলাদেশের জয়া আহসান।

এই অভিনেত্রীর সঙ্গে মানসিক দূরত্ব বাড়ায় নতুন করে যখন ঘোষণা এলো উপন্যাসটি নিয়ে ওয়েব সিরিজ বানাবেন সৃজিত, তখন শোনা গেল জয়ার পরিবর্তে পরীমনির নাম।

গেল জুলাইয়ে কলকাতার কিছু গণমাধ্যম জানিয়েছিল খবরটি। সেখানে দাবি করা হয়েছিলো নাজিম উদ্দিনের এই আলোচিত উপন্যাসটি নিয়ে ওয়েব সিরিজ নির্মাণ করতে যাচ্ছেন সৃজিত। ভারতীয় একটি ওটিটি প্ল্যাটফর্ম থেকে নির্মিত হতে যাওয়া এই সিরিজে অভিনয় করতে যাচ্ছেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী ও মোশাররফ করিম। সেখানে মুশকান জুবেরী হবেন বাংলাদেশের আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমনি। থাকবেন কলকাতার অনির্বাণ ভট্টাচার্যও। গল্পের প্রয়োজনে এর শুটিং হবে বাংলাদেশে। সেই খবর দারুণ আলোচনার জন্ম দিয়েছিলো।

কিন্তু সব আলোচনাতেই থেমে গেল। কারণ সৃজিত নিজেই জানালেন, করোনার কারণে তার বাংলাদেশে আসা হবে না। সেইসঙ্গে তার সিরিজটিতে বাংলাদেশের কোনো শিল্পীকেও দেখা যাবে না।

সৃজিত মুখার্জি এক টুইট বার্তায় নিশ্চিত করেছেন, ‘ইচ্ছে থাকা শর্তেও ওয়েব সিরিজে থাকছেন না বাংলাদেশের কেউ। বাংলাদেশের অভিনেতা নিয়ে সেখানে শুট করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু দুর্ভাগ্যক্রমে করোনার জন্য সেটা সম্ভব হচ্ছে না। তবে যাই হোক নাজিম উদ্দিনের উপন্যাসের স্বাদ অটুট রাখতে আমি আমার আমার যথাসাধ্য চেষ্টা করব।’

এদিকে সৃজিতের এমন ঘোষণার পর উপন্যাসটির কপিরাইট কেনা কলকাতার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান টিভিওয়ালা মিডিয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করলে নাম প্রকাশ না করার শর্তে প্রতিষ্ঠানটির এক কর্মকর্তা জানান, এই ওয়েব সিরিজের শিল্পী তালিকা এখনো চূড়ান্ত নয়। এর আগেও যা প্রকাশ হয়েছে সবই ছিলো কলকাতার গণমাধ্যমের অনুমান। শিগগিরই অফিসিয়ালি নাম ঘোষণা করা হবে সবার।

তিনি বলেন, ‘আমরা কলকাতা ও বাংলাদেশ মিলিয়ে কাজটি করতে চেয়েছিলাম। সেভাবেই সব কাজ চলছিল। যেসব অভিনেতা-অভিনেত্রীদের নাম প্রকাশ পেয়েছিল তাদের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে, আরও অনেকের সঙ্গেও হয়েছে। লক ডাউনের মধ্যে একাধিক ভার্চুয়াল মিটিং সেরেছি শিল্পীদের সঙ্গে। তারপর সিদ্ধান্ত হয়েছে। করোনার এমন পরিস্থিতি বাংলাদেশে গিয়ে কাজ করা বেশ সময় সাপেক্ষ ও ঝুঁকিপূর্ণ হবে। সেকারণে আমরা সিরিজটি কলকাতার অভিনেতা-অভিনেত্রী নিয়ে এখানেই শুট করতে যাচ্ছি। অনির্বাণ ভট্টাচার্য থাকছে এই সিরিজে বাকিদের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হয়নি। ওটা সৃজিত মুখার্জি দেখছেন।’

বাংলাদেশি লেখকের উপন্যাস নিয়ে কাজ করা হচ্ছে, সেখানে বাংলাদেশি শিল্পীদের কাজ করার ব্যাপারে খবরও ছড়িয়েছে। এবার সিরিজটিতে বাংলাদেশ ও দেশটির শিল্পীরা উপেক্ষিত হলে সেটি এখানকার দর্শক কীভাবে গ্রহণ করবেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘ভালো কাজ হলে সবাই পছন্দ করবেন। আমরা একটি ভালো কাজের চেষ্টা করছি।’

এলএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]