রাজউকের উত্তরা প্রকল্পে ৭৫ জনের অব্যাহতির আদেশ প্রত্যাহার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:৪১ এএম, ১৩ আগস্ট ২০১৮

রাজউকের উত্তরা অ্যাপার্টমেন্ট প্রকল্পে দায়িত্বরত ৭৫ জনকে চাকরি থেকে অব্যাহতির আদেশ প্রত্যাহার করে নিয়েছেন রাজউক। রোববার হাইকোর্টে হাজির হয়ে আদেশ কার্যকর করতে একদিন সময় নেয়ার পর আজই আদালতের আদেশ বাস্তবায়ন করেছেন রাজউক চেয়ারম্যান।

আদালতের আদেশ বাস্তবায়নের তথ্য সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন চাকরি ফিরে পাওয়াদের আইনজীবী অ্যাডভোকেট সালাহউদ্দিন দোলন।

আদালতের আদেশ অনুযায়ী, ৭৫ জনকে চাকরি থেকে অব্যাহতির আদেশ প্রত্যাহার না করায় হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট বেঞ্চ গত ৭ আগস্ট এক আদেশে রাজউক চেয়ারম্যান ও প্রকল্প পরিচালককে তলব করেন। ওই দিনের নির্দেশনা অনুযায়ী ১২ আগস্ট নির্ধারিত তারিখে তাদের আদালতে উপস্থিত হওযার কথা ছিল। রাজউক চেয়ারম্যান আদালতে হাজির হয়ে আদেশ বাস্তবায়নের জন্য একদিন সময় চান। আদালত সময় মঞ্জুর করেন। এরপর আজ চাকরি থেকে অব্যাহতির আদেশ প্রত্যাহার করে নতুন আদেশ জারি করেন বলে জানান সংশ্লিষ্ট আইনজীবী।

রাজউকের উত্তরা অ্যাপার্টমেন্ট প্রকল্পে ৭৫ জনকে বিভিন্ন পদে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেয়া হয়। গত ৩০ জুন এ প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা ছিল। এ অবস্থায় ৩ জুন প্রকল্প পরিচালকের এক নোটিশে ওই ৭৫ জনকে জানানো হয় যে, ৩০ জুন তাদের চাকরি থেকে অব্যাহতি দেয়া হবে। এ অবস্থায় গত ২৩ জুন একনেকে প্রকল্পের মেয়াদ ২০২০ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়। এরপরও তাদের দেয়া নোটিশ প্রত্যাহার না করায় হাইকোর্টে রিট আবেদন করেন ভুক্তভোগীরা।

হাইকোর্ট ২৪ জুন এক আদেশে নোটিশের কার্যকারিতা স্থগিত করেন ও রিট আবেদনকারীদের প্রকল্প চলা পর্যন্ত চাকরিতে বহাল রাখার নির্দেশ দেন। আদালতের এই আদেশের পরও গত ২৭ জুন প্রকল্প পরিচালকের এক নোটিশে ৭৫ জনকে চাকরি থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়। এ অবস্থায় সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলা করেন রিট আবেদনকারীরা।

এরপর প্রকল্প পরিচালক আদালতে হাজির হয়ে আইনজীবী অ্যাডভোকেট সাইফুদ্দিন আহমেদের মাধ্যমে জানান যে, ওই আদেশ প্রত্যাহার করা হবে। কিন্তু বাস্তবে আদেশ প্রত্যাহার না করায় রিট আবেদনকারীরা আবারো আদালতের শরনাপন্ন হন। এ অবস্থায় গত ৭ আগস্ট হাইকোর্টের বিচারপতি তারিক উল হাকিম এবং বিচারপতি মো. সোহরাওয়ার্দীর সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ রাজউক চেয়ারম্যান ও প্রকল্প পরিচালককে তলব করেন। আদালতে হাজির হয়ে একদিন সময় নেয়ার পর আজ ওই আদেশ বাস্তবায়ন করেছেন রাজউক চেয়ারম্যান।

এফএইচ/এমবিআর/জেআইএম