শিক্ষার্থীদের শান্তিপূর্ণ আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার আহ্বান নুরের

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:০৬ পিএম, ১৯ মার্চ ২০১৯

রাজধানীর যমুনা ফিউচার পার্কের সামনে সড়ক অবরোধকারী শিক্ষার্থীদের সাথে আন্দোলনে সংহতি জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) নবনির্বাচিত সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুর।

বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) শিক্ষার্থী আবরার আহমেদ চৌধুরী আজ সকাল সাড়ে ৭টার দিকে সু-প্রভাত বাসের চাপায় নিহত হন। এরপর থেকেই বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষার্থীরা রাস্তা অবরোধ করে আন্দোলনে নামেন। সড়কে দুর্ঘটনা রোধে ১২ দফা দাবি জানান তারা। এ আন্দোলন বিকেল ৫টা ৪০ মিনিট পর্যন্ত চলে। আগামীকাল বুধবার পর্যন্ত আন্দোলন স্থগিত করা হয়েছে।

বিকেল পৌনে ৫টায় সেখানে যান ভিপি নুর। তার সঙ্গে ছিলেন কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতা রাশেদ খান। শিক্ষার্থীদের এ আন্দোলন শান্তিপূর্ণভাবে চালিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানিয়ে নুর বলেন, এ আন্দোলনে আঘাত করা হলে ‘দাতভাঙা’ জবাব দেয়া হবে।

আন্দোলনে সংহতি জানিয়ে ভিপি বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রসমাজ একাত্মতা প্রকাশ করেছে। এর আগে নিরাপদ সড়ক আন্দোলন, কোটা আন্দোলনে রক্তক্ষয়ী হামলা চালানো হয়। ছাত্রসমাজকে সচেতন থাকতে হবে। শান্তিপূর্ণ আন্দোলন বানচালে বিভিন্ন মহল ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। শিক্ষার্থীদের শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে আঘাত করা হলে ছাত্রসমাজ দাতভাঙা জবাব দেবে।

এর আগে আন্দোলনস্থলে গিয়ে শিক্ষার্থীদের দাবি যৌক্তিক উল্লেখ করে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, শিক্ষার্থীরা দাবি জানিয়েছে সু-প্রভাত বাস রাস্তায় না চালাতে। আমি বলতে চাই, রাজধানী ঢাকার কোনো রুটেই সু-প্রভাত বাস চলবে না। আমি ইতোমধ্যে সংশ্লিষ্টদের বলেছি, সু-প্রভাতের লাইসেন্স বাতিল করতে হবে। ঢাকায় সু-প্রভাত চলবে না। সেই সঙ্গে চেকিং-কন্ট্রাক্ট সিস্টেম বাতিল করতে হবে।

নিহত শিক্ষার্থীর নামে প্রগতি সরণিতে সর্বোচ্চ তিন মাসের মধ্যে ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণের প্রতিশ্রুতিও দেন মেয়র।

মঙ্গলবারের এ ঘটনায় ওই বাসচালক সিরাজুলকে (২৯) আটক করা হয়েছে। শিক্ষার্থীরা এই চালকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন।

এ প্রসঙ্গে মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘চালকের বিচার করতেই হবে। দেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ী তার সর্বোচ্চ বিচার হবে।’

জেইউ/জেডএ/জেআইএম

টাইমলাইন