প্রতিমন্ত্রী ভেবেছেন এরকম কথা বললে মন্ত্রী বানানো হবে: জাফরুল্লাহ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৪৫ পিএম, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১

তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. মুরাদ হাসানের বিতর্কিত বক্তব্যে প্রসঙ্গে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, তথ্য প্রতিমন্ত্রী ক্যান্সারের চিকিৎসক, ক্যান্সারের বীজ উনার মাথায় ঢুকে গেছে। বেচারা দীর্ঘদিন ধরে চেষ্টা করছেন মঞ্চে আসার জন্য। উনি হয়তো ভাবছেন এ ধরনের কথা বললে উনাকে মন্ত্রী বানানো হবে। কিন্তু ক্যান্সার উনার মাথাটা খেয়ে দেবে।

সোমবার (৬ ডিসেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে ‘জাতি গঠনে যুব সমাজের ভূমিকা’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় এ কথা বলেন ডা. জাফরুল্লাহ। ‘বাংলাদেশ যুব অধিকার পরিষদের কাউন্সিল-২০২১’ উপলক্ষে এ আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, উপরের দিকে চেয়ে থুতু ফেললে নিজে গায়ে পড়তে পারে, সুতরাং এরকম কাজ করবেন না। আমাদের শালীন হওয়া দরকার। মন্ত্রিত্বের লোভে অমানুষ হওয়া উচিত নয়। প্রধানমন্ত্রীর উচিত অনতিবিলম্বে তাকে বরখাস্ত করা।


jagonews24

ছাত্রদের হাফ ভাড়ার বিষয়ে তিনি বলেন, ছাত্ররা যা পারে সরকার তা পারে না। সারাবিশ্বে হয় ছাত্রদের হাফ ভাড়া রয়েছে না হয় পুরোটা ফ্রি রয়েছে। এটা নিয়ে ঝগড়া করার কী আছে। ছাত্রদের হাফ ভাড়া দেবে বলে বাস মালিকদের ক্ষতি করা যাবে না বলে মন্তব্য করে তিনি বলেন, বাস মালিকদের ভ্যাট মওকুফ করে দিতে হবে। ভ্যাট প্রত্যাহার করে দিলে তাদেরও ক্ষতি হবে না আমাদেরও ক্ষতি হবে না।

তিনি বলেন, স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেছেন ভ্যাকসিন কিনতে খরচ হয়েছে ১২ কোটি ডলার। কিন্তু আমরা অর্ধেক দামে ভ্যাকসিন দিতে চেয়েছিলাম, তারা নেয়নি। এটা কী বিচার হবে না? এ বিচার স্বাস্থ্যমন্ত্রীর হবে, প্রধানমন্ত্রীর হবে।

আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন গণঅধিকার পরিষদ সদস্য সচিব নুরুল হক নুর, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ড. আনোয়ারুল্লাহ চৌধুরী, রাষ্ট্রবিজ্ঞানী অধ্যাপক দিলারা চৌধুরী প্রমুখ।

এএএম/এমএএইচ/এমএস

টাইমলাইন  

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]