বগুড়ায় ৭শ হেক্টর জমির ফসল পানির নিচে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বগুড়া
প্রকাশিত: ০৯:২৯ পিএম, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮
ফাইল ছবি

উজান থেকে নেমে আসা ঢলে যমুনা নদীতে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় বগুড়ার সারিয়াকান্দি ও ধুনটে বন্যার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। রোববার সন্ধ্যায় বগুড়ার সারিয়াকান্দি পয়েন্টে ২৪ ঘণ্টায় ৫ সেন্টিমিটার পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার ৭ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এদিকে পানি বেড়ে যাওয়ায় নিম্নাঞ্চলের ফসলি জমিতে বন্যার পানি প্রবেশ করেছে।

সারিয়াকান্দি উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার চালুয়াবাড়ী, কাজলা, বোহাইল, হাটশেরপুর, কুতুবপুর ও সদর ইউনিয়নে বন্যায় ২ হাজার ৯৪০ জন কৃষকের রোপা আমন, রোপা আমনের বীজতলা, আউশ, মাসকালাই, মরিচসহ ৫৬৫ হেক্টর জমির ফসল বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে।

এ দিকে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে চালুয়াবাড়ী ইউনিয়নের হাটবাড়ি, ভাঙরগাছা চরে বন্যার্তদের মাঝে ১০ কেজি করে চাল বিতরণ করা হয়েছে।

একই ভাবে ধুনট উপজেলার চরাঞ্চলের ৭টি গ্রামের ১৩৫ হেক্টর জমির বিভিন্ন জাতের ফসল তলিয়ে গেছে। রোববার যমুনা নদীর পানি বিপদসীমার ১২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। অব্যাহত পানি বৃদ্ধির ফলে নদীর কূল উপচে পানি চরাঞ্চল ও বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের দিকে ধেয়ে আসছে।

নদীর পূর্ব তীর ডুবে পুকুরিয়া, কৈয়াগাড়ি, শহড়াবড়ি, বানিয়াজান, ভান্ডারবাড়ি, বৈশাখী ও রাধানগর চরের কৃষকের জমির ধান, মাসকলাই, মরিচ, আখ ও বিভিন্ন জাতের সবজি ক্ষেত বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে। পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধে সার্বক্ষণিক নজরদারি করছে পাউবোর কর্মকর্তারা।

বগুড়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী হাসান মাহমুদ জানান, যমুনায় পানি বৃদ্ধি অব্যাহত আছে। পানি আরও বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

লিমন বাসার/এমএএস/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :