ভাইয়ের পেটে ছুরি ঢুকিয়ে দিলেন ভাই

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি দিনাজপুর
প্রকাশিত: ০৬:১৯ পিএম, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮
প্রতীকী ছবি

দিনাজপুরের খানসামা উপজেলায় জমি নিয়ে বিরোধের জেরে আপন ফুফাতো ভাইকে হত্যা করা হয়েছে। হত্যাকারী ও তার বাবা-মাকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার দুপুর ১টার দিকে খানসামা উপজেলার ৫ নং ভাবকি চাকিনিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যক্তির নাম আমিনুল ইসলাম ( ৩৫)। তিনি খানসামা উপজেলার ৫ নং ভাবকি চাকিনিয়া গ্রামের শফিকুল ইসলামের ছেলে। আটককৃতরা হলেন একই গ্রামের দুলু (৩০), তার বাবা ইলিয়াস আলী ও মা শহিদা বানু।

স্থানীয় সূত্র জানায়, দুলু ও নিহত আমিনুল ইসলাম আপন মামাতো-ফুপাতো ভাই। দুলুর নানা ও আমিনুল ইসলামের দাদা উজয় পরামানিক তার বাড়িতে বসবাস করে আসছিলেন।

শেষবয়সে নাতি আমিনুল ইসলাম তার ভোরণপোষণ ও দেখাশোনা করতেন। সেই কারণে মৃত্যুর আগে তার নামে থাকা জমি নাতি আমিনুল ইসলামকে লিখে দেন।

এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। বুধবার সকালে এ বিষয় নিয়ে দুলু তার ফুফা শফিকুল ইসলামকে অপমান করেন। ফুফা শফিকুল ইসলাম বাড়িতে গিয়ে পরিবারের লোকজনকে ঘটনা জানান।

দুপুরে বাড়িতে আসলে ফুফাতো ভাই আমিনুল ইসলাম দুলুর কাছে জানতে চান কেন এ ঘটনা ঘটিয়েছে। এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে ধস্তাধস্তি শুরু হয়। এ সময় দুলু তার কাছে থাকা ধারালো ছুরি দিয়ে আমিনুল ইসলামের বুকে পেটে আঘাত করে। এলাকার লোকজন দুলুকে আটক করে ও আমিনুলকে পাকেরহাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক শামছুজোহা মুকুল মৃত ঘোষণা দেন। পরে দুলু, তার বাবা ইলিয়াস আলী ও মা শহিদা বানুকে আটক করে পুলিশ।

বিষয়টি নিশ্চিত করে খানসামা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল মতিন বলেন, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করা হয়েছে।

এমদাদুল হক মিলন/এএম/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :