পটুয়াখালীতে ২৮১০ ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত, ২ লাখ গাছপালা তছনছ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পটুয়াখালী
প্রকাশিত: ০৭:৫৬ পিএম, ১০ নভেম্বর ২০১৯

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তাণ্ডবে লন্ডভন্ড হয়ে গেছে উপকূলীয় জেলা পটুয়াখালী। এতে বিধ্বস্ত হয়েছে ২ হাজার ৮১০টি ঘরবাড়ি। সেই সঙ্গে পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জের উত্তর রামপুরায় হামেদ ফকির (৬৫) নামে এক বৃদ্ধ নিহত হয়েছেন।

পাশাপাশি দুমকি উপজেলায় দুজন আহত হয়েছেন। রোববার (১০ নভেম্বর) ভোররাতে আঘাত হানার পর শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তাণ্ডবে এসব ঘটনা ঘটেছে। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন পটুয়াখালীর জেলা প্রশাসক (ডিসি) মতিউল ইসলাম চৌধুরী।

Patuakhali-Storm

তিনি বলেন, ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তাণ্ডবে ২ হাজার ৮১০টি ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। এর মধ্যে আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ২ হাজার ৪১০ ঘরবাড়ি। পুরোপুরি বিধ্বস্ত হয়েছে ৩৯৮ ঘরবাড়ি। পাশাপাশি মির্জাগঞ্জের উত্তর রামপুরায় হামেদ ফকির নামে এক বৃদ্ধ নিহত হয়েছেন। কলাপাড়া পূর্ব ধানখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সাইক্লোন শেল্টারে রিজিয়া বেগম (৬৫) নামে এক বৃদ্ধা মারা গেছেন। সেই সঙ্গে দুমকি উপজেলায় দুজন আহত হয়েছেন।

Patuakhali-Storm

ডিসি মতিউল ইসলাম চৌধুরী আরও বলেন, বুলবুলের তাণ্ডবে ২৮ হাজার ৫০৮ হেক্টর জমির ফসল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। গবাদিপশু নিখোঁজ হয়েছে ২০টি, ১ হাজার ৪২৮টি হাস-মুরগি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ২ লাখ ১ হাজার ৩০০টি গাছপালার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। পাশাপাশি গলাচিপা উপজেলায় ১২ জন জেলেসহ ট্রলার নিখোঁজ রয়েছে।

এর আগে প্রবল ঘূর্ণিঝড় বুলবুল শনিবার রাত ২টার দিকে পটুয়াখালীতে আঘাত হানে। এর প্রভাব এখনো রয়ে গেছে। জেলাজুড়ে এখনো বৃষ্টি অব্যাহত আছে।

মহিব্বুল্লাহ্ চৌধুরী/এএম/পিআর

টাইমলাইন