উপকূলে জরুরি ত্রাণ বিতরণ করছে কোস্ট গার্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:৫৩ পিএম, ১০ নভেম্বর ২০১৯

ঘূর্ণিঝড় বুলবুল দুর্বল হয়ে পড়েছে। তবে বুলবুলের আঘাতে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের উপকূলীয় জেলাগুলোতে উপড়ে গেছে বহু গাছ, বিধ্বস্ত হয়েছে কাঁচা ঘরবাড়ি। ভারী বর্ষণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ফসলের ক্ষেত। অনেক জায়গায় খুঁটি ভেঙে বিদ্যুৎ সরবরাহ ব্যবস্থাও ক্ষতিগ্রন্ত হয়েছে। এতাবস্থায় জরুরি ত্রাণ বিতরণ, চিকিৎসা সেবা প্রদান এবং উদ্ধার কার্য শুরু করেছে কোস্ট গার্ড।

কোস্ট গার্ড সদর দফতরের মিডিয়া কর্মকর্তা লে. বি এন এম হায়াত ইবনে সিদ্দিক এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ঘুর্ণিঝড় বুলবুলে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তায় সাতক্ষীরার কয়রা ও গাবুরা এলাকায় দুটি জাহাজ, সুন্দরবনের দুবলার চরে একটি জাহাজে করে জরুরি ত্রাণ বিতরণ শুরু করা হয়েছে। আহতদের চিকিৎসা সেবা প্রদান ও উদ্ধার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে কোস্ট গার্ড।

coast-guard-2.jpg

ঘণ্টায় ১১৫ থেকে ১২৫ কিলোমিটার বেগের বাতাসের শক্তি নিয়ে বাংলাদেশ সময় শনিবার রাত ৯টায় পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার সাগর দ্বীপ উপকূলে আঘাত হানে অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় বুলবুল।

পুরোপুরি স্থলভাগে উঠে আসার পর সুন্দরবনের ভারতীয় অংশের কাছ দিয়ে এ ঝড় পশ্চিমবঙ্গ উপকূল অতিক্রম করে। তারপর রোববার ভোর ৫টার দিকে বাংলাদেশের দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলে পৌঁছায়। বৃষ্টি ঝরিয়ে শক্তি হারিয়ে সকালে বুলবুল পরিণত হয় গভীর স্থল নিম্নচাপে।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোহামম্দ মহসিন জানিয়েছেন, বিভিন্ন জেলা থেকে আসা তথ্য সমন্বয় করে দুপুরের দিকে তারা ক্ষয়ক্ষতির একটি প্রাথমিক চিত্র দিতে পারবেন।

জেইউ/জেডএ/এমএস

টাইমলাইন