রাজবাড়ীর সড়কে কমেছে বাস, নেওয়া হচ্ছে বাড়তি ভাড়া

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি রাজবাড়ী
প্রকাশিত: ০৮:৫৭ পিএম, ০৬ আগস্ট ২০২২
রাজবাড়ীর সড়কে কমেছে বাস

জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধিতে ভাড়া জটিলতায় রাজবাড়ীর সড়কে কমেছে দূরপাল্লা ও অভ্যন্তরীণ রুটের বাস চলাচল। যেসব গাড়ি চলছে তাতে বাড়তি ভাড়া আদায় করা হচ্ছে। এতে বিপাকে পড়েছেন যাত্রীরা। শনিবার (৬ আগস্ট) সকাল থেকে বাসস্ট্যান্ড ঘুরে এমনটা জানা যায়।

যাত্রী হুমায়ুন কবির বলেন, ফরিদপুরের ভাড়া আগে ৫০ টাকা নেওয়া হতো। কিন্তু আজ ৬০ টাকা নেওয়া হচ্ছে তালিকা ছাড়াই। এছাড়া দৌলতদিয়ার ভাড়াও বাড়তি নিচ্ছে বাসগুলো। সব ঝামেলা সাধারণ মানুষের।’

আরেক যাত্রী আলিম মিয়া বলেন, ‘আগেই টিকিট কেটেছিলাম। সে ভাড়াতেই যাচ্ছি। আগামীতে কী হবে বুঝতে পারছি না। শুধু তেল নয়, এখন সব দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি। চাপ পড়ছে সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষের ওপর।’

jagonews24

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অভ্যন্তরীণ রুটের কয়েকটি বাসের সুপারভাইজার ও চালক জানান, প্রতিদিন রাজবাড়ী-কুষ্টিয়া-ফরিদপুর ও দৌলতদিয়া রুটে সব মিলিয়ে ১৬০টি ট্রিপ হয়। শনিবার বেলা ১১টা পর্যন্ত প্রায় ৭০ ট্রিপের হয়েছে ৩০টি। ভাড়া বেশি চাইলে যাত্রীরা তালিকা চান। কিন্তু এখনো ভাড়ার তালিকা হয়নি। তাই অনেক গাড়ি বন্ধ আছে। যেসব গাড়ি চলাচল করছে, তাতে যাত্রীদের বলে সামান্য কিছু টাকা বেশি নেওয়া হচ্ছে।

এমএম পরিবহনের ম্যানেজার আলম বলেন, ‘দিনে ছয়টি ট্রিপের মধ্যে সকাল থেকে এখন পর্যন্ত দুটি হয়েছে। আগে ৩০০ টাকা নিলেও আজ সাড়ে ৩০০ টাকা নেওয়া হচ্ছে। তবে সেটা যাত্রীদের বুঝিয়ে নিচ্ছি।’

রাজবাড়ীর বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. মুরাদ হাসান জাগো নিউজকে বলেন, ‘এখনো ভাড়া নির্ধারণ হয়নি। কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের আলোকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তবে তেলের দাম যেহেতু বেশি, সে কারণে হয় তো কিছু গাড়ি মালিকরা বন্ধ রাখবে। কিন্তু তারা চান সব গাড়ি রাস্তায় চলুক। তেলের দাম বাড়লেও আজ রাজবাড়ী থেকে দূরপাল্লার অনেক গাড়ি ছেড়ে গেছে।’

রুবেলুর রহমান/এসজে/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]