বিয়ের গুজবে কান না দিয়ে হলে গিয়ে আমার ছবিটি দেখুন : মিম

মাসুম আওয়াল
মাসুম আওয়াল মাসুম আওয়াল , স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশিত: ০২:৪৪ পিএম, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

অনেক দিন থেকেই মুক্তির অপেক্ষায় ছিল ঢাকাই ছবির জনপ্রিয় জুটি বাপ্পী চৌধুরী ও বিদ্যা সিনহা মিম অভিনীত ‘দাগ হৃদয়ে’ সিনেমাটি। ত্রিভুজ প্রেমের এই ছবিতে বাপ্পী-মিম ছাড়াও অভিনয় করেছেন আঁচল। অবশেষে ভালোবাসা দিবসকে সামনে রেখে ৮ ফেব্রুয়ারি সারা দেশে মুক্তি পেয়েছে সিনেমাটি।

এটি পরিচালনা করেছেন তারেক শিকদার। ছবিটি নিয়ে ও সিনেমার নানা প্রসঙ্গে জাগো নিউজের সঙ্গে কথা বলেছেন মডেল ও অভিনেত্রী বিদ্যা সিনহা মিম। তুলে ধরা হলো আলাপের চুম্বক অংশ-

জাগো নিউজ : কেমন আছেন?
বিদ্যা সিনহা মিম : এই তো ভালো আছি।

জাগো নিউজ : আপনার অভিনীত ছবি মুক্তি পেয়েছে শুক্রবার। সিনেমা দেখেছেন?
বিদ্যা সিনহা মিম : না গতকাল যাওয়া হয়নি। তবে দুই একদিনের মধ্যেই ছবি দেখতে যাব। দর্শক সারিতে বসে দর্শকের সঙ্গে ছবি দেখতে অনেক ভালো লাগে। সরাসরি তাদের মতামত জানা যায়।

জাগো নিউজ : বলা হচ্ছে ‘দাগ হৃদয়ে’ ছবির প্রচারণায় আপনি নিরব। কেন?
বিদ্যা সিনহা মিম : মোটেও এই বলাটা সত্যি নয়। আমি কেন নিরব থাকবো আমার নিজের অভিনয় করা ছবির প্রচারের বেলায়? কোনো কারণ নেই। আসলে ছবিটির মুক্তির তারিখ যখন চূড়ান্ত হলো তখন আমি অন্য ছবি ও ওয়েব সিরিজ নিয়ে ব্যস্ত। বাট এই ছবি নিয়ে অনেক সাক্ষাতকারে বলেছি, নিউজে বলেছি। আমার কাছে প্রতিটি ছবিই একরকম। প্রতিটি ছবির সাফল্যে যেমন আমি আনন্দিত হই, ব্যর্থতার দায়ও আমার থাকে।

জাগো নিউজ : এই ছবি নিয়ে কী প্রত্যাশা আপনার?
বিদ্যা সিনহা মিম : অনেক দিন আগেই এই ছবিটির কাজ শেষ করেছিলাম। অবেশেষে ছবিটি মুক্তি পেল বলে অনেক ভালো লাগছে। গল্পটি অনেক সুন্দর। আমি একজন পেইন্টারের চরিত্রে অভিনয় করেছি। সব মিলিয়ে নতুনত্ব আছে গল্পটির।

Bappy-mim

এই ছবির দুই নায়িকা আমি ও আঁচল। এই প্রথম দুই নায়িকা আছে এমন ছবিতে অভিনয় করা হলো। এর আগে আমার সবকটা ছবিতেই সিঙ্গেল নায়িকা হিসেবেই অভিনয় করেছি। সবকিছু মিলিয়ে ভালো হয়েছে। দেখা যাক দর্শক কীভাবে নেয়।

জাগো নিউজ : এক নায়কের বিপরীতে দুই নায়িকার শুটিংয়ের দিনগুলো কেমন ছিল?
বিদ্যা সিনহা মিম : বাপ্পি আমি ও আচঁল আমারা সবাই মিলে মিশে খুব মজা করে শুটিং করেছিলাম ছবিটার। শুধু একটা দূর্ঘটনা ঘটেছিল ছবিটার শুটিং করতে গিয়ে। আগেও বলেছি এটা। পাহাড় থেকে পড়ে যাওয়ার একটা দৃশ্যে অভিনয় করতে গিয়ে সত্যি সত্যি পাহাড় থেকে পড়ে গিয়েছিলাম। মাথা ফেটে গিয়েছিল। ছবিটা সফল হলে সেই কষ্ট সার্থক হবে।

জাগো নিউজ : ছবির চমক কী?
বিদ্যা সিনহা মিম : ছবিটির গল্প পড়ে মুগ্ধ হয়েছিলাম। এই ছবির প্রধান চমকই হলো গল্প। আমরা অভিনয় করে সেই গল্পটিকেই ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করেছি। আমার বিশ্বাস দর্শক মুগ্ধ হবেন দেখে। এখনো যারা দেখেননি তাদের হলে গিয়ে সিনেমাটি দেখার আমন্ত্রণ জানাই।

জাগো নিউজ : নতুন কোনো চলচ্চিত্রে কাজ করছেন?
বিদ্যা সিনহা মিম : আপাতত গোলাম সোহরাব দোদুল পরিচালিত ‘সাপলুডু’ ও কলকাতার সিনেমা ‘থাইকারি’ এই দুটি সিনেমা এখন মুক্তির অপেক্ষায় আছে। এছাড়া হাতে নেই কোনো সিনেমা। তবে কথা হচ্ছে অনেকের সঙ্গেই নতুন সিনেমা নিয়ে চূড়ান্ত হলেই জানাবো।

Bappy-mim

জাগো নিউজ : ওয়েব সিরিজেও অভিনয় করছেন এখন, সিনেমার ক্যারিয়ারে জন্য এটা ঝুঁকিপূর্ণ কী না ?
বিদ্যা সিনহা মিম : দেখুন, ওয়েব সিরিজ এখন হচ্ছে ফিল্মিক ওয়েতেই। এখনকার ওয়েব সিরিজগুলোর গল্প ও নির্মাণশৈলী সিনেমার মতই। সিনেমার চেয়ে কোনো অংশেই কম নয় এগুলো। বাজেটও থাকেছে সিনেমার মতই।

বলিউডের নায়িকারাও কিন্ত সমান তালে অভিনয় করছেন ওয়েব সিরিজে। এখন ইউটিউবে না, টাকা দিয়েই বিভিন্ন অ্যাপসের মাধ্যমে দেখতে হচ্ছে ওয়েব সিরিজগুলো। সিনেমার মতই হচ্ছে সব, পার্থক্য হলো শুধু বড় পর্দায় মুক্তি পাচ্ছে না এটা। হলিউডের তারকারাও নেট ফ্লিক্সের জন্য কাজ করছেন। যখন চারদিকে সব বদলে যাচ্ছে তথ্য প্রযুক্তির কল্যাণে তখন এটাও একটা নতুন সংযোজন।

জাগো নিউজ : নতুন বছরে প্রথম দুটি দেশি ছবি মুক্তি পেল বছর শুরু হবার পাঁচ সপ্তাহ পর। হল মালিকরা বলেন ভালো ছবির অভাবে হল বন্ধ হয়ে যাচ্ছে, আর অন্যরা বলেন ভালো হল নেই তাই ছবি হিট হচ্ছে না। কোনটা ঠিক?
বিদ্যা সিনহা মিম : সিনেমা হলের পরিবেশ যেমন সুন্দর হওয়া প্রয়োজন, তেমনি প্রয়োজন অনেক ভালো সিনেমা। সবাই এগিয়ে আসলে তবেই সুন্দর একটা ইন্ডাস্ট্রি দাঁড়াবে। একজন অভিনেত্রী হিসেবে এই বিষয়ে বলতেই পারি, এর বেশি কিছু করা কিন্তু আমাদের পক্ষে সম্ভব নয়। কিন্তু যারা হল মালিক ও সিনেমার প্রযোজক তারা যদি বিষয়গুলো নিয়ে ভাবেন তাহলে ধীরে ধীরে আমরা এগিয়ে যাবো। আমাদের ভালো হল যেমন প্রয়োজন, ভালো সিনেমাও প্রয়োজন।

জাগো নিউজ : এক ছবিতে আপনি ও আঁচল অন্য আরেক ছবির নায়িকা পরীমনি। লড়াই কেমন জমবে বলে মনে হচ্ছে?
বিদ্যা সিনহা মিম : আসলে এটা লড়াই না। ওর (পরীমনি) জন্য অনেক শুভকামনা থাকলো। আমরা চাই সবার ছবিই যেনো ভালো চলে। সবার ছবি ভালো চললেই আমাদের সিনেমা ইন্ডাস্ট্রি এগিয়ে যাবে। আগে একসঙ্গে বড় বড় তারকাদের সিনেমা মুক্তি পেত। সেটাতে একটা মজা ছিলো। আমরাও সেই দিন ফিরে আসার প্রত্যাশায়। আরও অনেক ভালো ভালো সিনেমা নির্মাণ হোক।

জাগো নিউজ : আমরা কথা শেষ করবো, শেষে একটা বিষয় জানতে চাই। আপনার বিয়ের গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে বেশ কিছুদিন থেকে......
বিদ্যা সিনহা মিম : এগুলো গুজব ছাড়া আর কিছুই না। বিয়ে করলে তো সবাইকে জানিয়েই করবো। এতে লুকোচুরির কিছু নেই। কারা যে কয়েক দিন পর পর এই সব গুজব ছড়ায় আমি বুঝি না। সবাইকে আমি অনুরোধ করে বলবো বিয়ের গুজবে কান না দিয়ে হলে গিয়ে আমার ছবিটি দেখুন।

জাগো নিউজ : জাগো নিউজকে সময় দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ।
বিদ্যা সিনহা মিম : আপনাকে ও জাগো নিউজকে ধন্যবাদ।

এমএবি/এলএ/এমএস

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - [email protected]