সফল পথচলায় বঙ্গ বুম

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:১৮ পিএম, ০৩ মার্চ ২০১৯

তারুণ্যকে প্রাধান্য দিয়ে দেশীয় বিনোদনের জন্য ৩ ফেব্রুয়ারি যাত্রা শুরু করে ইউটিউব চ্যানেল ‘বঙ্গ বুম’। মাত্র ২২ দিনে ১ লক্ষ সাবস্ক্রাইবার অতিক্রম করলো চ্যানেলটি। যার ফলে দেশের দ্রুতগামী চ্যানেল হিসেবে সিলভার বাটন অর্জন করলো।

১০টি পূর্ণাঙ্গ কন্টেন্ট থেকে এই মাইলফলক স্পর্শ করে চ্যানেলটি। একঝাঁক তরুণ প্রতিশ্রুতিশীল ও পরিচিত কন্টেন্ট নির্মাতাদের সহযোগিতা নিয়ে ‘বঙ্গ বুম’ তারুণ্যভিত্তিক বিভিন্ন ধরণের শো’য়ে যথা-ব্লগ, সেলেব গসিপ, স্কেচেস্, ইনফোটেইনমেন্ট, কুকিং, ফিটনেস, লাইফস্টাইল, মিউজিক. ওয়েব সিরিজ, শর্টফিল্মসহ নানা প্রকারের কন্টেন্ট দর্শকদেরজন্য পরিবেশন করে থাকে।

‘বঙ্গ বুম’র ব্যবস্থাপক আসিফ বিন আজাদ। তিনি জানান, দর্শকদের কথা মাথায় রেখে গতানুগতিক অনুষ্ঠান নির্মাণধারা থেকে বেরিয়ে এসে কন্টেন্ট নির্মাতাদের অন্য একটি আঙ্গিকে বিনোদনধর্মী অনুষ্ঠান বানানোর স্বাধীনতা দেয় ‘বুম’। সেখানে বহুমুখী প্রতিভাবানদের একটি কন্টেন্ট নির্মাতাদল তরুণদের জন্য ভিন্ন ঢঙের রুচিসম্মত কন্টেন্ট নির্মাণ করে বাংলাদেশের ইউটিউব আঙ্গিনাকে সমৃদ্ধ করে চলেছে।

‘বঙ্গ বুম’ এখনো পর্যন্ত প্রত্যয় হিরন, হৃদি শেখ, তৌহিদ আফ্রিদি, জেফার, মাহতিম শাকিব, সৌভিক আহমেদ, জাকিলাভসহ আরো অনেক কন্টেন্টে নির্মাতা ও ইনফ্লুয়েন্সারকে দর্শকদের সামনে তুলে ধরেছে। এছাড়াও মেহজাবিন চৌধুরী, অপু বিশ্বাস ও আরো কিছু পরিচিত মুখকে ‘সারপ্রাইজিং আ ফ্যান’ শোয়ে আমন্ত্রণ করে।

দর্শক আগে দেখেনি এমন বহুমুখী ও মৌলিক অনুষ্ঠানমালার সাথে তাদের পরিচয় করিয়ে দেয়া ‘বুম’র একমাত্র লক্ষ্য।

আসিফ বিন আজাদ বলেন, ‘স্বপ্নের এই প্রজেক্টটি বাস্তবায়নে আমার ২ বছর ভাবতে ও পরিকল্পনা করতে সময় লেগেছে। দলে সৌভিক আহমেদের মতো সহকর্মী না থাকলে এই পরিকল্পনা সহজ হতো না। যাত্রার শুরু থেকে এই পর্যন্ত সবার ভালোবাসা ও সাড়া পেয়ে আমরা অভিভূত।’

এলএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]