জলবায়ু সম্মেলনে পরিবেশবান্ধব সব পরিবহন ফ্রি

মফিজুল সাদিক
মফিজুল সাদিক মফিজুল সাদিক , জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক গ্লাসগো থেকে
প্রকাশিত: ০২:৩৯ পিএম, ০৪ নভেম্বর ২০২১

স্কটিশ শহরে চলমান জাতিসংঘের জলবায়ু বিষয়ক ‘কপ-২৬ শীর্ষ সম্মেলনে’ যোগ দিতে আসা প্রতিনিধিদের যাতায়াত সুবিধার জন্য ‘ইওর ফ্রি ট্রাভেল পাস’ নামের একটি কার্ড দেওয়া হয়েছে। এতে করে সাংবাদিকসহ সম্মেলনে আসা প্রায় ৩০ হাজার মানুষ যাতায়াত সুবিধা পাচ্ছেন। তারা গ্লাসগো, বুকানন, এডিনবার্গ, হলিটাউন, গ্লাসগো সেন্ট্রালসহ সব স্থানে পরিবহন ফ্রিতে চলাচল করছেন।

স্কটল্যান্ডের গ্লাসগো শহরে শুরু হওয়া এ সম্মেলন চলবে আগামী ১২ নভেম্বর পর্যন্ত। এতে যাতায়াত সুবিধার জন্য দেওয়া সব পরিবহনই পরিবেশবান্ধব। বিশেষত এতে ইলেকট্রনিক ট্রেন ও বাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

জলবায়ু সম্মেলনে পরিবেশবান্ধব সব পরিবহন ফ্রি

পৃথিবীর নানা প্রান্ত থেকে আসা প্রতিনিধিদের গ্লাসগো স্কটিশ ইভেন্ট সেন্টারে পৌঁছে দিতে ৩০০টি ইলেকট্রনিক বাস চালু করা হয়েছে। এছাড়া ইলেকট্রনিক মেট্রোরেলও সম্মেলনে আসা প্রতিনিধিদের পরিবহনে ব্যবহার হচ্ছে।

স্কটল্যান্ডের গ্লাসগো শহরে দুই সপ্তাহের এ সম্মেলনে ৩০ হাজারের বেশি মানুষ অংশ নিয়েছেন। বাস ও ট্রেন স্টেশনে জলবায়ু সম্মেলনের স্বেচ্ছাসেবক দেখা গেছে। সবাই যাতে সম্মেলনে সঠিকভাবে অংশ নিতে পারেন, স্টেশনগুলোতে সে তথ্য দেওয়া হচ্ছে।

জলবায়ু সম্মেলনে পরিবেশবান্ধব সব পরিবহন ফ্রি

গ্লাসগো কপ২৬ সম্মেলন ভবন এলাকার আশপাশেই শুধু নয়, গ্লাসগো শহরের কেন্দ্রেও পা বাড়ালেই চোখে পড়ছে পুলিশের কড়া নজরদারি।

সম্মেলনের ভেন্যুতে প্রবেশের সময় পাসপোর্ট ও আইডি কার্ড দেখাতে হচ্ছে। প্রতিনিধিদের ব্যাগ ও কোর্ট সযত্নে রাখার ব্যবস্থা হয়েছে। কোর্ট ও ব্যাগ জমা নিয়ে টোকেন দেওয়া হচ্ছে। ফিরতি টোকেনেই ফেরত পাওয়া যাবে কোর্ট ও ব্যাগ। স্কটল্যান্ডের গড় তাপমাত্রা চার থেকে পাঁচ ডিগ্রি হলেও ভেন্যুর ভেতরের তাপমাত্রা স্বাভাবিক রাখা হয়েছে।

জলবায়ু সম্মেলনে পরিবেশবান্ধব সব পরিবহন ফ্রি

এছাড়া জলবায়ু সম্মেলন অংশ নেওয়া প্রতিনিধিদের খাবার পানি ও করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সব ধরনের মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিনামূল্যে বিতরণ হচ্ছে।

বিশ্বকে বাঁচাতে ২০৩০ সাল নাগাদ কার্বন নিঃসরণ কীভাবে কমানো হবে, তা ঠিক করতে বিশ্বের অন্তত ১২০টি দেশের রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানসহ ২০০টি দেশের প্রতিনিধি এবারের সম্মেলনে যোগ দিচ্ছেন।

জলবায়ু সম্মেলনে পরিবেশবান্ধব সব পরিবহন ফ্রি

প্রতিদিন কোভিড-১৯ টেস্টসহ সম্মেলন ভবনে প্রবেশের অনুমতিপত্র বা অ্যাক্রিডিটেশন কার্ড পাওয়ার সময় দুই ডোজ ভ্যাকসিন নেওয়ার প্রমাণ দিতে হচ্ছে। এরপর সম্মেলন ভবনে বা চত্বরে ঢোকার জন্য প্রতিদিন নিজে নিজে ল্যাটরাল ফ্লো টেস্ট, অর্থাৎ নিজে নিজে কোভিড-১৯ টেস্ট করে এর প্রমাণ দেখাতে হচ্ছে।

কোভিড-১৯ ল্যাটরাল ফ্লো টেস্ট কিট সংগ্রহ করছেন কয়েকজন ডেলিগেট। পিসিআর ও র্যাপিড টেস্টের জন্য কিট ফ্রি দেওয়া হচ্ছে। এক কথায় জলবায়ু সম্মেলনে অংশ নেওয়া প্রতিনিধিদের সব ধরনের সুযোগ সুবিধা দিচ্ছেন আয়োজকেরা।

এমওইএস/এমকেআর/জেআইএম

টাইমলাইন  

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]