জলবায়ু সম্মেলন নিয়ে পুতিন-শি জিনপিংয়ের সমালোচনায় বাইডেন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:৪৬ এএম, ০৩ নভেম্বর ২০২১

জলবায়ুবিষয়ক শীর্ষ সম্মেলন, কপ২৬ চলছে স্কটল্যান্ডের গ্লাসগোতে। এতে সরাসরি অংশ নেননি রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। দেশ দুটির সরকার প্রধান উপস্থিত না থাকায় কঠোর সমালোচনা করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (২ নভেম্বর) সম্মেলন চলাকালে এক বক্তৃতায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেন, জলবায়ুর মতো বড় ইস্যুতে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এবং চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং উপস্থিত নেই।

উভয় দেশই দুই সপ্তাহের এই সম্মেলনে প্রতিনিধি দল পাঠিয়েছেন। যদিও সম্মেলন চলবে আগামী ১৪ নভেম্বর পর্যন্ত এবং তারা সেখানে উপস্থিত থাকবেন।

ক্রেমলিনের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির তথ্য অনুয়ায়ী, কপ২৬ সম্মেলনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বক্তব্য দেওয়ার আগে রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিন ভার্চুয়ালি এক বৈঠকে অংশ নেন। ভ্লাদিমির পুতিন বন ব্যবস্থাপনাবিষয়ক এ বৈঠকে বলেন, বনভূমি সুরক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নেবে দেশটি।

এদিকে, চীন, রাশিয়া ও সৌদি আরবের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন করা হয় প্রেসিডেন্ট বাইডেনকে। তিনি অভিযোগ করে বলেন, বিশ্বে নেতা হিসেবে নতুন ভূমিকা জাহির করার চেষ্টা করছে চীন। কিন্তু জলবায়ু সম্মেলনে প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের অনুপস্থিত ‘একটি বড় ভুল’। রাশিয়ায় জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে দেশটির প্রেসিডেন্ট নিশ্চুপ বলে অভিযোগ করেন তিনি।

যুক্তরাষ্ট্রের পর কার্বন ডাই অক্সাইড নিঃসরণে বিশ্বের অন্যতম দেশ চীন আর ইউরোপীয় ইউনিয়ন ( ইইউ) ও ভারতের পর পঞ্চম অবস্থানে রাশিয়া।

বিশ্বের ১২০টির বেশি দেশের সরকার প্রধানরা স্কটল্যান্ডের গ্লাসগোতে অংশ নিয়েছেন জলবায়ু সম্মেলনে। এরই মধ্যে তারা জলবায়ু পরিবর্তনের নেতিবাচক প্রভাব মোকাবিলায় নানা ধরনের প্রুতিশ্রুতি ব্যক্ত করেছেন। কার্বন নিঃসরণ ও বন রক্ষার মতো বিষয়গুলো প্রাধান্য পেয়েছে মূল আনুষ্ঠানিকতার প্রথম দিনে।

সূত্র: আল-জাজিরা, বিবিসি

এসএনআর/এমএস

টাইমলাইন  

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]