লাল-সাদায় একঘেয়েমি কাটাতে দশমীতে যেভাবে সাজবেন

লাইফস্টাইল ডেস্ক
লাইফস্টাইল ডেস্ক লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:০৬ পিএম, ০৫ অক্টোবর ২০২২

দুর্গপূজার আজ শেষ দিন অর্থাৎ বিজয়া দশমী। এদিন হিন্দু ধর্মাবলম্বী নারীরা সেজে ওঠেন লাল-সাদা শাড়িতে। যদিও দুর্গাপূজার শুরুর দিন থেকেই সর্বত্র লাল-সাদা রঙের ছড়াছড়ি থাকে।

তবে দশমীর দিন লাল-সাদা পোশাক গায়ে জড়ালেও একঘেয়েমি কাটাতে সাজে আনুন বৈচিত্র্য, যাতে ভিড়ের মাঝেও আপনাকে সবাই লক্ষ্য করে। চলুন তবে জেনে নিন সাজ-পোশাকে দশমীতে সবার নজর কাড়বেন কীভাবে-

শাড়িতে যেভাবে অনন্যা হয়ে উঠবেন

লাল-সাদা শাড়ি পরলেও ডিজাইন যেন অন্যদের চেয়ে ভিন্ন হয় সেদিকে খেয়াল রাখুন। সব সময় যে দামি শাড়িগুলোই সবার নজর কাড়ে তা কিন্তু নয়, একটি সাধারণ শাড়িতেও নিজেকে অপরূপা দেখাতে পারেন আপনি।

একরঙা সাদা শাড়ির সঙ্গে কন্ট্রাস্ট বা লাল ভারি কাজের নকশা করা ব্লাউজ পরুন। ঠিক একইভাবে লাল শাড়ির সঙ্গে সাদা বা অন্যান্য রঙের ব্লাউজও কন্ট্রাস্ট করে পরতে পারেন।

বর্তমানে ব্লাউজে অনেক বৈচিত্র্য এসেছে। বিশেষ করে পিঠ আর হাতার নানা ডিজাইন এখন ফ্যাশনে বেশ জনপ্রিয়। সেদিকে খেয়াল রাখুন।

আর যদি ভিড়ের মাঝেও নিজেকে আকর্ষণীয় করে তুলতে চান তাহলে শাড়ি পরেও স্টাইলে আনুন পরিবর্তন। এর সঙ্গে পরুন চওড়া বা মোটা স্টোনের কিংবা মেটালের বেল্ট।

বিশেষ করে জর্জেট, শিফন, সিল্ক কিংবা কাতান শাড়ির সঙ্গে বেল্ট পরলে আপনি হয়ে উঠবে অপরূপা। বেল্ট পরার পর শাড়ির আঁচল উঠিয়েও পরতে পারেন আবার ছেড়ে রাখলেও কিন্তু দুর্দান্ত দেখাবে।

সাজে অপরূপা হয়ে উঠতে

দশমীতে যেহেতু নারীরা রং খেলেন এজন্য ত্বকের স্বাস্থ্যের দিকে নজর রাখা জরুরি। ত্বক পরিচ্ছন্ন রাখার পাশাপাশি ত্বক আর্দ্র রাখার দিকেও মন দিতে হবে।

বাঙালি সাজের মূল আকর্ষণ হল চোখ। এদিন স্মোকি আইজ বা ধূসর রঙে সাজাতে পারেন চোখ। আইশ্যাডো ব্যবহারের পর কাজল বা আইলাইনারের সাহায্যে আরও ফুটিয়ে তুলুন চোখ।

চাইলে এর উপর সামান্য হাইলাইটার দিতে পারেন। সন্ধ্যায় আরও জাকজমকভাবে সাজুন ইচ্ছেমতো। শাড়ি পরলে কপালে লাল টিপ পরুন। গালে সামান্য ব্লাশ অন ও হাইলাইটার ব্যবহার করতে পারে।

গাঢ় মেকআপ করলে পোশাকে হালকা রং বেছে নিন। তবে লাল ছাড়াও গোলাপি, হালকা কমলা রং দশমীর পোশাকে নজর কাড়তে পারে।

জেএমএস/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।