নুসরাতের জন্য পদযাত্রা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:২১ পিএম, ১২ এপ্রিল ২০১৯

ফেনীর সোনাগাজীর মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে যৌন নির্যাতন ও পুড়িয়ে হত্যার বিচারের দাবিতে পদযাত্রা করেছে বাংলাদেশ নারীমুক্তি কেন্দ্র।

শুক্রবার বিকেলে এ পদযাত্রা শুরু হয় রাজধানীর নারীমুক্তি কেন্দ্রের তোপখানা রোডের কার্যালয় থেকে। পদযাত্রাটি সেগুনবাগিচা, পল্টন, জিরোপয়েন্ট, বায়তুল মোকাররম মসজিদ প্রাঙ্গণ হয়ে প্রেস ক্লাব থেকে শিল্পকলায় গিয়ে শেষ হয়।

পদযাত্রার সময় বিভিন্ন জায়গায় সমাবেশ করেন তারা। এতে বক্তব্য দেন সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি সুলতানা আক্তার রুবি, কেন্দ্রীয় অর্থ সম্পাদক তসলিমা আক্তার, সদস্য নাঈমা খালেদ মনিকা, ঢাকা নগর নেতা ফারজানা মালা তৌফিকা লিজা প্রমুখ।

এ সময় বক্তারা বলেন, ‘প্রতিদিন সংবাদপত্রের পাতা উল্টালেই আমরা নারীর ওপর সহিংসতার খবর পাই। এ সহিংসতার কারণ কী? নারীর প্রতি অধস্তন দৃষ্টিভঙ্গি মানুষকে পাশবিক করে ফেলছে। সমাজ, মূল্যবোধ, নৈতিকতা দিনদিন চেতনা থেকে হারিয়ে যাচ্ছে।’

nusrat-1

‘নুসরাত, একটি নিষ্পাপ মুখ। যার এ বছর আলিম পরীক্ষা দিয়ে পাস করার কথা ছিল। অথচ নানা সময়ের যৌন হয়রানির অভিযোগ প্রকাশ ও প্রতিবাদ করায় তাকে পুড়িয়ে মারা হলো। নুসরাত আমাদের কাছে আহ্বান করে গেছে, ‘তোমরা শেষ পর্যন্ত লড়ো’,- যোগ করেন বক্তারা।

তারা আরও বলেন, ‘আমরা যারা শেষ পর্যন্ত লড়তে চাই, যারা নিজেদের মনে করছি আমিই নুসরাতের মা, নুসরাত আমারই বোন, তারা সবাই এ পদযাত্রায় শামিল হয়েছি। আসুন, রাস্তায় নামি। শোক নয়, প্রয়োজন প্রতিবাদের শক্তি। সারা দেশে প্রতিবাদে আমরা রাষ্ট্রকে নির্যাতক ও হত্যাকারীদের বিচার ও শাস্তি দিতে বাধ্য করি।’

প্রেস ক্লাবের সামনে অবস্থানের সময় এক বক্তা বলেন, ‘বর্তমান শাসকগোষ্ঠী নারীদের নিরাপত্তা দিতে পারছে না। তাই সবাইকে নিজেদের জায়গা থেকে এগিয়ে আসতে হবে।’

পিডি/জেডএ/এমকেএইচ

টাইমলাইন  

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]