নুসরাত হত্যা : আড়াই হাজার শিক্ষার্থীর বিক্ষোভ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফেনী
প্রকাশিত: ০৬:২৩ পিএম, ২০ এপ্রিল ২০১৯

ফেনীর সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদরাসার ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে আজও বিক্ষোভ ও মানববন্দন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার সকালে ফেনী শহর ও সোনাগাজীর বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা এ কর্মসূচি পালন করে। সকালে শহরের ট্রাংক রোডের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে মানববন্ধনের আয়োজন করে ফেনী সেন্ট্রাল হাই স্কুলের শিক্ষার্থীরা।

স্কুলের প্রধান শিক্ষক সাইফুল ইসলামের সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য রাখেন- ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও ফেনী প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি নুরুল করিম মজুমদার। মানববন্ধনে স্কুলের কয়েকশ শিক্ষার্থী-অভিভাবক ও শিক্ষকরা নানা ফেস্টুন নিয়ে রাফি হত্যায় জড়িতদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেন।

বেলা ১১টায় শহরের একাডেমি সড়কে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন জিএ একাডেমি স্কুল পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি মো. ইউসুফ। এতে আরও বক্তব্য রাখেন- স্কুলের সদস্য বাহার উদ্দিন বাহার, অভিভাবক সদস্য রবিউল হক রবি, সদস্য মো. মজিবুল হক, জয়নাল আবেদিন, দিবস কান্তি মিত্র। জিএ একাডেমি স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. তাজুল ইসলাম চৌধুরীর সঞ্চালনায় মানববন্ধনে স্কুলের আড়াই হাজার শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও শিক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন।

feni-nusrat-1

এদিকে, নুসরাত হত্যার প্রতিবাদে সোনাগাজীর বেশ কয়েকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে। হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবিতে সোনাগাজীর চরচান্দিয়া ইউনিয়নের আজিজুল হক মায়মুনারা উচ্চ বিদ্যালয় ও আল জামেয়া ইসলামিয়া দাখিল মাদরাাসা, সদর ইউনিয়নের চর খোন্দকার আফছার উদ্দিন মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক, পরিচালনা কমিটি ও অভিভাবকরা মানববন্ধন করেন।

আলোচিত এ মামলায় এখন পর্যন্ত ১৯ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ও পিবিআই। এদের মধ্যে অধ্যক্ষ এসএম সিরাজ উদ দৌলা, কাউন্সিলর ও পৌর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাকসুদ আলম, শিক্ষক আবছার উদ্দিন, সহপাঠী আরিফুল ইসলাম, নূর হোসেন, কেফায়াত উল্লাহ জনি, মোহাম্মদ আলা উদ্দিন, শাহিদুল ইসলাম, অধ্যক্ষের ভাগনি উম্মে সুলতানা পপি, জাবেদ হোসেন, জোবায়ের হোসেন, নুর উদ্দিন, শাহাদাত হোসেন, মো. শামীম, কামরুন নাহার মনি, জান্নাতুল আফরোজ মনি, আবদুর রহিম ওরফে শরিফ, হাফেজ আবদুল কাদের ও আওয়ামী লীগ সভাপতি ও ওই মাদরাসার সহ-সভাপতি রুহুল আমিন।

রাশেদুল হাসান/এএম/এমএস

টাইমলাইন