ঘানায় টিম বাস নদীতে পড়ে ৭ ফুটবলার নিহত

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:২৭ এএম, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০

নতুন মৌসুমে খেলার স্বপ্ন নিয়ে একসঙ্গে রেজিস্ট্রেশন করতে গিয়েছিলেন একঝাঁক তরুণ ফুটবলার। সেই কাজ ঠিকঠাক শেষ করলেও আর ঘরে ফেরা হয়নি অন্তত ৭ ফুটবলারের। শনিবার ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনায় পথেই প্রাণ হারিয়েছেন ঘানার ৬ তরুণ ফুটবলার, হাসপাতালে মৃত্যু হয়েছে আরও একজনের।

ঘানা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের (জিএফএ) পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে এসব তরুণ ফুটবলারদের মৃত্যুর খবর। শনিবার কোল্টস লিগে রেজিস্ট্রেশনের জন্য আফ্রাঞ্চোতে গিয়েছিলেন আফ্রিকান ভিশন একাডেমির ৩৪ জনের দল। সেখান থেকে অফিনসোতে ফেরার পথে আশান্তি অঞ্চলের কুমাসি-অফিনসো সড়কে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে তাদের বাসটি।

নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সঙ্গে সঙ্গে গভীর নদীতে পড়ে যায় তরুণ ফুটবলারদের বহনকারী সেই বাস। দীর্ঘসময় ধরে সেখানেই পড়ে ছিল বাসটি। বেশ দুর্গম জায়গায় দুর্ঘটনাটি ঘটায় উদ্ধারকাজেও বেগ পেতে হয়েছে অনেক। ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান ৬ ফুটবলার। পরে হাসপাতালে নেয়া হলে আশঙ্কাজনক একজনের মৃত্যু হয়। এছাড়া গুরুতর আহত হয়েছেন অন্তত ২৫ জন।

শনিবার রাতে জিএফএ’র ওয়েবসাইটে এ ঘটনার কথা জানিয়ে আনুষ্ঠানিক বিবৃতির মাধ্যমে শোকপ্রকাশ করা হয়। পরে রোববার দেশটির ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের কর্তাব্যক্তিরা আহত ফুটবলারদের সবশেষ অবস্থা দেখতে হাসপাতালে যান। জানা গেছে, মৃত ফুটবলারদের সবার বয়স ১২ থেকে ১৬’র মধ্যে।

সোশ্যাল মিডিয়াতে ছড়িয়ে পড়া বিভিন্ন অসমর্থিত ভিডিওতে দেখা যায় বাসের টায়ার ব্লাস্ট হওয়ার কারণে দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। তবে এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক কোনো তথ্য জানা যায়নি। অফিনসো অঞ্চলের ট্রাফিক বিভাগ থেকে জানা গিয়েছে, বাসটিতে মোট ৩৬ জন ছিলেন।

অফিনসো ট্রাফিক বিভাগের কমান্ডার এডমুন্ড নিয়ামেকে সংবাদমাধ্যমে বলেছেন, ‘আমাদের প্রাথমিক তদন্তে বেরিয়ে এসেছে, বাসটি পুরোটাই ফুটবলারদের দিয়ে ভরা ছিল। যারা একটি লিগে (রেজিস্ট্রেশন) অংশ নিয়ে ফিরছিল। অফিন নদীর কাছাকাছি আসতে অতিরিক্ত গতির কারণে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে এবং বাসটি নদীতে পড়ে যায়।’

এসএএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]