রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে ম্যান ইউকে হারাল লিভারপুল

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:১১ এএম, ১৪ মে ২০২১

ম্যাচটি হওয়ার কথা ছিল গত ২ মে। কিন্তু ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সমর্থকদের বিক্ষোভের মুখে তা স্থগিত করতে বাধ্য হয় কর্তৃপক্ষ। পুনঃনির্ধারিত সূচিতে প্রায় সপ্তাহদুয়েক পর লিভারপুলকে স্বাগত জানালো ম্যান ইউ। কিন্তু পায়নি নিজেদের প্রত্যাশামাফিক ফল।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা আগেই নিশ্চিত হয়ে গেছে ম্যানচেস্টার সিটির। টেবিলের পরের দলগুলো লড়ছে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে নিজেদের টিকিট নিশ্চিত করতে। সেটিও এরই মধ্যে পেয়ে গেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ফলে তাদের আর লিগ থেকে পাওয়ার নেই কিছুই।

তবু সামনে যখন চির প্রতিদ্বন্দ্বী লিভারপুল, তখন জয়ের বাড়তি তাড়নাই থাকে ম্যান ইউর মাঝে। তার ওপর নিজেদের ঘরের মাঠে ম্যাচ হওয়ায় বাড়তি উজ্জীবিত ছিল দলটি। ম্যাচের মাত্র ১০ মিনিটের মাথায় গোল করেন দলকে এগিয়ে দেন পর্তুগিজ তারকা ব্রুনো ফার্নান্দেস।

কিন্তু প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার আগেই সেই গোল ফেরত দিয়ে লিডও নিয়ে নেয় লিভারপুল। প্রথমে ম্যাচের ৩৪ মিনিটের পর সময় সমতা ফেরান ডিয়েগো জোতা। এরপর প্রথমার্ধের অতিরিক্ত যোগ করা সময়ে দ্বিতীয় গোল করেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রবার্তো ফিরমিনো।

দ্বিতীয়ার্ধে ফিরেও চলতে থাকে ফিরমিনো জাদু। মাত্র দুই মিনিটের মধ্যেই দলের তৃতীয় ও নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন তিনি। তিন গোল হজম করে ফেলার পর লড়াইয়ে ফেরার প্রাণপন চেষ্টা করে ম্যান ইউ। ম্যাচের ৬৮ মিনিটে ব্যবধান কমান মার্কাস রাশফোর্ড।

পরে সমতাসূচক গোল আর পায়নি স্বাগতিকরা। উল্টো নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে গোল করে দলকে আনন্দে ভাসান লিভারপুলের মিশরিয়ান জাদুকর মোহামেদ সালাহ। ওল্ড ট্র্যাফোর্ড থেকে ৪-২ গোলের রোমাঞ্চকর জয় নিয়ে বাড়ি ফেরে লিভারপুল।

এ জয়ের পর লিগের ৩৬ রাউন্ড শেষে ৬০ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচ নম্বরে অবস্থান করছে লিভারপুল। অন্যদিকে হারলেও ৩৬ ম্যাচে ৭০ পয়েন্ট নিয়ে নিজেদের দ্বিতীয় স্থান ধরে রেখেছে ম্যান ইউ। শীর্ষে থাকা ম্যান সিটির সংগ্রহ ৩৫ ম্যাচে ৮০ পয়েন্ট।

এসএএস/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]