গাড়ি উল্টে খাদে, ‘কপাল জোরে’ বাঁচলেন টাইগার উডস

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:২৭ পিএম, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১

‘আমি বলব, মি. উডসের অনেক বড় সৌভাগ্য যে তিনি এমন দুর্ঘটনার পর জীবিত আছেন’- কিংবদন্তি গলফার টাইগার উডসের গাড়ি দুর্ঘটনার বিষয়ে সংবাদমাধ্যমে এমনটাই বলেছেন ঘটনাস্থলে সবার আগে পৌঁছানো দায়িত্বরত কর্মকর্তা কার্লোস গঞ্জালেজ।

বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় লস অ্যাঞ্জেলসের কাছাকাছি পাহাড়ি রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় ভয়াবহ গাড়ি দুর্ঘটনার কবলে পড়েছেন টাইগার উডস। বাঁক ঘুরতে গিয়ে হঠাৎ করেই রাস্তার পাশে খাদে পড়ে যায় তার গাড়ি। এ দুর্ঘটনায় গাড়ির সামনের অংশ পুরো দুমড়েমুচড়ে যায়।

ঘটনাস্থলে উদ্ধারকর্মীরা পৌঁছার পরেও আশা করেননি যে ভেতর থেকে জীবিত কাউকে বের করতে পারবেন। তবে পুরোপুরি কপাল জোরেই বেঁচে গেছেন ১৫ বারের মেজর চ্যাম্পিয়ন টাইগার উডস। প্রাণে বাঁচলেও পায়ের দুই জায়গায় ভেঙে গেছে তার। এছাড়া গোড়ালিও অনেক বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

jagonews24

উদ্ধারের পর উডসের বিধ্বস্ত গাড়ি

এমন এক দুর্ঘটনার পরেও জ্ঞান হারাননি ৪৫ বছর বয়সী উডস। তিনি উদ্ধারকারী দলের সঙ্গে কথাও বলেছেন। লস অ্যাঞ্জেলস কাউন্টি শেরিফের ডেপুটি কার্লোস গঞ্জালেজ জানিয়েছেন, ‘সিট বেল্ট পরা ছিলেন উডস। আমি বলব, মি. উডসের অনেক বড় সৌভাগ্য, তিনি এমন দুর্ঘটনার পর জীবিত আছেন। তাকে দ্রুততর সময়ের মধ্যে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’

উডসের এজেন্ট মার্ক স্টেনবার্গ জানিয়েছেন, গতকাল (মঙ্গলবার) লস অ্যাঞ্জেলসের রোলিং হিলস এস্টেট ও র‌্যাঞ্চো পালোসা ভার্দাস সীমান্তে গাড়ি দুর্ঘটনার কবলে পড়েন উডস। তার গাড়িটি রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় বাঁক নেয়ার মুখে আচমকা ঘুরে যায়। কয়েকটি পাক খেয়ে সেটি খাদে পড়ে যায়। ঢালু রাস্তাটি সবসময়ই দুর্ঘটনাপ্রবণ।

এসএএস/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]