পুকুর নিয়ে দ্বন্দ্বে খালাতো ভাইকে কুপিয়ে হত্যা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি যশোর
প্রকাশিত: ০৫:১৪ পিএম, ১৪ জুন ২০১৯
প্রতীকী ছবি

যশোরের চৌগাছায় পুকুর ইজারা নিয়ে দ্বন্দ্বে মমিনুর রহমান (৫০) নামে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা করেছে তারই তিন খালাতো ভাই। শুক্রবার সকালে উপজেলার লস্কারপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত মমিন ওই গ্রামের শামসুদ্দিন ঈসমাইলের ছেলে।

চৌগাছা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিফাত খান রাজীব বলেন, গ্রামের একটি পুকুরের মালিক দুই ব্যক্তি। তারা গ্রামে থাকেন না। এদের এক ভাইয়ের কাছ থেকে পুকুর ইজারা নেন ইউনূস ও তার ভাইয়েরা। এরই মধ্যে পুকুরের মালিক আরেক ভাইয়ের কাছ থেকে পুকুরের ইজারা নেন মমিনুর রহমান। সকালে সেই পুকুরে খুঁটিপুঁতে নেট জাল দিচ্ছিলেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মমিনুর রহমানকে কুপিয়ে হত্যা করেছে তার আপন খালাতো ভাই ইউনূস আলী, আলম ও মশিয়ার রহমান। তাদেরকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

নিহতের স্ত্রী শেফালী বেগম জানান, সকালে বাড়ির পাশের পুকুরে নেট দিচ্ছিলেন মমিনুর। এ সময় একই গ্রামের মৃত সিরাজুল ইসলামের ছেলে ইউনূছ আলী, আলম ও মশিয়ারের নেতৃত্বে আলমের ছেলে তুষার, মশিয়ারের ছেলে সুমন, আলমের শ্যালক আবু বক্করের ছেলে নান্নু, ইউনূছ-আলমদের ভাগ্নে চুড়ামনকাঠি গ্রামের রাসেল দেশীয় অস্ত্র রাম-দা ও গাছি-দা দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে। তারা মমিনুরকে মৃত ভেবে ফেলে রেখে যায়। তাকে উদ্ধার করে চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত ডা. সুব্রত কুমার বাগচী বলেন, হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়েছে। নিহতের দুই হাত, বুক, পিঠসহ সমস্ত শরীরে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে।

চৌগাছা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ ড. মোস্তানিছুর রহমান বলেন, নিহত মমিনুর আওয়ামী লীগের কর্মী। হত্যাকারীদের দ্রুত আটক করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানাচ্ছি।

মিলন রহমান/আরএআর/এমকেএইচ