প্রশাসন শক্ত ভূমিকায় থাকলে সহিংসতা হতো না: পাটমন্ত্রী

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নারায়ণগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৯:২০ পিএম, ০১ ডিসেম্বর ২০২১

নৌকার প্রার্থীকে ভোট দেওয়ায় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীসহ নিরীহ মানুষের বাড়িঘরে হামলা ও গুলিবর্ষণ করেছে সন্ত্রাসীরা। এসব হামলাকারীদের আইনের আওতায় আনতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন পাট ও বস্ত্রমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী।

বুধবার (১ ডিসেম্বর) দুপুরে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার কায়েতপাড়া ইউনিয়নের নাওড়া গ্রামের সন্ত্রাসীদের দেওয়া আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে গিয়ে এ মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, এসব সন্ত্রাসীদের আইনের আওতায় আনা না হলে আরও বড় ধরনের ঘটনা ঘটাবে সন্ত্রাসীরা। প্রশাসন শক্ত ভূমিকায় থাকলে সহিংসতা হতো না। সন্ত্রাসীরা দীর্ঘ চার ঘণ্টা সময় ধরে এ তাণ্ডব চালিয়েছেন। ঢাকা থেকে অস্ত্রসহ সন্ত্রাসী এনে এ ধরনের ঘটনা একটার পর একটা ঘটিয়ে যাচ্ছেন।

মন্ত্রী বলেন, হামলাকারীরা ঘটনাস্থলে ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি ঢুকতে দেয়নি। যারা এ ধরনের অপরাধ করেছে তাদের দ্রুত আইনের আওতায় আনার জন্য স্থানীয় আওয়ামীলীগকে সঙ্গে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে জানাবো। আমি মনে করি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অভিযুক্ত রফিক, সফিক ও মিজানসহ হামলাকারীদের আইনের আওতায় আনবেন।

এসময় নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) জায়েদুল আলম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আমির খসরু, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শাহ নুসরাত, সহকারী পুলিশ সুপার (গ সার্কেল) আবির হোসেন, কাঞ্চন পৌরসভার মেয়র রফিকুল ইসলাম, রূপগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান সালাউদ্দিন ভূঁইয়া ও ভুলতা ইউপি চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আরিফুল হক ভূঁইয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় পাট ও বস্ত্রমন্ত্রী ক্ষতিগ্রস্ত প্রত্যেক পরিবারকে ৫০ হাজার টাকা করে অনুদান প্রদান করেন।

মোবাশ্বির শ্রাবণ/আরএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]