ফিক্সিংয়ে জড়িয়ে ৮ বছর নিষিদ্ধ শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটার

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭:৫৮ পিএম, ১৯ এপ্রিল ২০২১

শ্রীলঙ্কা জাতীয় দলের হয়ে যাত্রাটা খুব বেশি বড় নয়। মাত্র ৯টি ওয়ানডে এবং ২টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন অলরাউন্ডার দিলহারা লোকুহেতিগ। তাও সর্বশেষ জাতীয় দলের জার্সি গায়ে জড়িয়েছিলেন ২০১৩ সালে।

প্রায় বিসৃত হয়ে যাওয়া এই অলরাউন্ডারই এখন ক্রিকেট বিশ্বে শিরোনামে। কারণটা মোটেও ইতিবাচক নয়। পুরোপুরি নেতিবাচক। ফিক্সিংয়ের দায়ে তাকে আট বছরের জন্য সব ধরনের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে আইসিসির অ্যান্টি করাপশন ট্রাইবুন্যাল।

ক্রিকেট দুর্নীতিতে জড়িয়েছিলেন লোকুহেতিগ। আইসিসি এর প্রমাণও পেয়েছে। কিন্তু লঙ্কান এই অলরাউন্ডার মোটেও আইসিসিকে সহযোগিতা করেননি। বরং, নানাভাবে অসহযোগিতারই চেষ্টা করেছেন। যে কারণে আইসিসি তাকে এত বড় শাস্তি দিল।

২০১৯ সালের এপ্রিল থেকে লোকুহেতিগের বিপক্ষে তদন্ত শুরু করে আইসিসি। এরও ৫ মাস আগে তদন্ত শুরু করেছিল আরব আমিরাত ক্রিকেট বোর্ড। ২০১৭ সালে আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত একটি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে ফিক্সিংয়ের দায়ে তার নামে তদন্ত শুরু করে ইউএই ক্রিকেট বোর্ড।

চলতি বছরের জানুয়ারিতে আইসিসি লোকুহেতিগের বিপক্ষে তিনটি আইনের লঙ্ঘণ হয়েছে, এমন অভিযোগের প্রমাণ খুঁজে পায়। প্রথমটি হলো : ম্যাচের ফল পরিবর্তনের লক্ষ্যে তৃতীয় পক্ষের সঙ্গে অবৈধ চুক্তি, কিংবা চুক্তির মধ্যস্থতা করা কিংবা তথ্য সরবরাহ করা।

দ্বিতীয় অপরাধ হলো : ব্যক্তিগতভাবে হোক কিংবা অন্য যে কোনোভাবে প্রথম অপরাধের সঙ্গে নিজে জড়িত থাকা। তৃতীয় অপরাধ হলো : আইসিসির অ্যান্টি করাপশন ইউনিটের কাছে অভিযোগের বিপক্ষে কোনো প্রমাণ কিংবা কাগজপত্র হাজির করতে না পারা এবং অসহযোগিতা করা।

আইএইচএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]