ক্যাসিনো নিয়ে অর্থমন্ত্রী ও সচিবের ভিন্ন মত

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:২৪ পিএম, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯

বাংলাদেশে বৈধভাবে ক্যাসিনো থাকবে কি থাকবে না, এ বিষয়ে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মহিবুল হক সকালে বললেন এক কথা। আর বিকেলে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বললেন ভিন্ন কথা।

সচিব বলেন, এক্সক্লুসিভ ট্যুরিস্ট জোনে বিদেশিদের জন্য ক্যাসিনো থাকবে। তবে বিকেলে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘ক্যাসিনো হচ্ছে একটা জুয়া। জুয়াতো টোটালি ইলিগ্যাল। আমাদের দেশে কোনো প্রকারে কোনোভাবেই জুয়া চলে না। ক্যাসিনো তো চলতেই পারে না। অবৈধ কাজ তো সরকার আইন করেও বৈধ করবে না।’

মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে নিরাপদ সড়ক বিষয়ে এক সেমিনার শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী একথা বলেন।

ক্যাসিনো সরঞ্জামের কিছু কিছু নিজস্ব নাম দিয়েই আমদানি করা হয়েছে। আবার এসব জিনিস আমদানি করা আইন অনুযায়ী অবৈধও নয়। তাহলে কী এ ক্ষেত্রে আইন পরিবর্তন করবেন? আবার সচিব বলেছেন যে, বিদেশিদের আকৃষ্ট করতে কক্সবাজারে ক্যাসিনো করা হবে আসলে এ ব্যাপারে কি ধরনের পদক্ষেপ আপনারা নিতে যাচ্ছেন? এমন প্রশ্নে মন্ত্রী বলেন, ‘দেশের বাইরে যে নিয়ম-কানুন আছে সেগুলোতো আমাদের দেশে চলবে না।’

আরও অনেক বিষয়ে অভিযোগ রয়েছে তবে তাদের ধরা হয়নি। এদের ব্যাংক হিসাব ফ্রিজসহ অন্যান্য পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন কি না জানতে চাইলে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘এগুলোতে আরও দেখতে হবে। এখানে কেউ অবৈধভাবে টাকা অর্জন করলেই এনবিআর এসে টাকা নিয়ে যাবে না। নেয়ার কোনো আইন নেই। এনবিআর এ বিষয়ে আইনি প্রক্রিয়ায় এগোবে। এর বাইরে যাবে না।’

‘বাইরে যাওয়ার জন্য অন্য এজেন্সি আছে। তারা তাদের কাজটা করবে। মোটকথা ক্লিনিং যে অপারেশন হচ্ছে এটা গুড ওয়ার্ক। আমার মনে হয় দেশের সব মানুষ এটাকে সাপোর্ট করছে। ক্যাসিনোতে যেসব বিদেশিরা কাজ করছে তাদের বিষয়টা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় দেখবে।’

এদিকে ২৭ সেপ্টেম্বর বিশ্ব পর্যটন দিবস উপলক্ষে মঙ্গলবার সকালে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মহিবুল হক বলেন, এক্সক্লুসিভ ট্যুরিস্ট জোনে বিদেশিদের জন্য ক্যাসিনো থাকবে।

সচিব বলেন, ‘যে ক্যাসিনো নিয়ে আজকে অনেক কথা হচ্ছে, ক্যাসিনো কিন্তু বাংলাদেশে বিশেষ করে পর্যটকদের জন্য দরকার। মালয়েশিয়ায় কিন্তু ক্যাসিনো আছে, সেখানে কিন্তু পাসপোর্ট দিয়ে ক্যাসিনোতে ঢুকতে হয়। আমরা তো তাদের জন্য এ ধরনের কোনো সুযোগ-সুবিধা দিতে পারছি না। আমরা যেখানে এক্সক্লুসিভ ট্যুরিস্ট জোন করব, সেখানে বিদেশিদের জন্য এসব সুযোগ-সুবিধা থাকবে।’

তিনি বলেন, ‘এখন যে সরকারের উদ্যোগ (ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান) আমি তার সঙ্গে কোনো দ্বিমত পোষণ করছি না। সরকারের উদ্যোগের সঙ্গে সম্পূর্ণ একমত। আমি যেটা বলতে চাচ্ছি বিদেশিদের জন্য, যেখানে শুধু পাসপোর্ট দিয়েই তারা যাবে। আমি এ কথাটাই বলতে চাচ্ছি।’

এমইউএইচ/জেএইচ/এমএস

টাইমলাইন