‘সংবাদপত্রের কণ্ঠরোধের মনোভাব থেকে রোজিনার বিরুদ্ধে মামলা’

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:৪৭ পিএম, ১৮ মে ২০২১ | আপডেট: ০৮:৫৩ পিএম, ১৮ মে ২০২১
ছবি : সংগৃহীত

দৈনিক প্রথম আলোর সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে সচিবালয়ে প্রায় সাড়ে পাঁচ ঘণ্টা হেনস্তার পর থানায় সোপর্দ, মামলা দায়ের, রাতভর থানায় রাখা এবং জামিন না দিয়ে কারাগারে পাঠানোর ঘটনায় উদ্বেগ, ক্ষোভ, নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে সম্পাদক পরিষদ।

সম্পাদক পরিষদের পক্ষে সংগঠনের সভাপতি মাহফুজ আনাম এবং সাধারণ সম্পাদক নঈম নিজাম বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেছেন।

সম্পাদক পরিষদের বিবৃতিতে বলা হয়, ‘১৯২৩ সালের অফিসিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্টের আওতায় রোজিনা ইসলামের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। এই যুগে একজন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে ঔপনিবেশিক আমলের আইনে মামলা দায়ের সংশ্লিষ্টদের সংবাদপত্রের কণ্ঠরোধের নেতিবাচক মনোভাব ও অশুভ মানসিকতার বহিঃপ্রকাশ, যা গণমাধ্যমের স্বাধীনতা খর্বের চেষ্টার পাশাপাশি আগামী দিনের স্বাধীন সাংবাদিকতা ও মত প্রকাশের জন্য হুমকি। একটি গণতান্ত্রিক সমাজে এ ধরনের হীন চেষ্টা সংবাদপত্রের অস্তিত্বকে হুমকির দিকে ঠেলে দেয় ও পেশাকে চ্যালেঞ্জের দিকে নিয়ে যায়।’

সম্পাদক পরিষদ মনে করে, ‘এই নজিরবিহীন ঘটনা বাংলাদেশের সাংবাদিকতার ইতিহাসে কালো অধ্যায় হয়ে থাকবে। রোজিনা ইসলামকে সচিবালয়ে প্রায় সাড়ে পাঁচ ঘণ্টা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের একটি কক্ষে জিম্মি করে রাখা, তাকে বিভিন্নভাবে হেনস্তা করার ঘটনা শুধু দুঃখজনক নয়, এর সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে। কোন আইনে একজন সাংবাদিককে এভাবে আটকে রাখা হলো নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে তা বের করতে হবে। ব্যবস্থা নিতে হবে দোষীদের বিরুদ্ধে।’

সম্পাদক পরিষদ রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তির পাশাপাশি পুরো ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ারও দাবি জানিয়েছে।

এএএইচ/এমকেএইচ

টাইমলাইন  

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]