আপনি ডাকলেই চলে আসব : প্রধানমন্ত্রীকে দেবী শেঠী

মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল
মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল , বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৪:৪৫ পিএম, ০৪ মার্চ ২০১৯

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন উপমহাদেশের প্রখ্যাত হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. দেবী শেঠী।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে আজ (সোমবার) বিকেলে এ সৌজন্য সাক্ষাৎ হয়। এ সময় দেবী শেঠী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বলেন, ‘বিএসএমএমইউর চিকিৎসকরা আন্তর্জাতিক মানদণ্ড অনুযায়ী ওবায়দুল কাদেরকে সঠিক চিকিৎসা দিয়েছেন।’

বাংলাদেশে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য তিনি প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান এবং যেকোনো সময় যেকোনো প্রয়োজনে ডাকলে, অর্ডার দিলে তিনি বাংলাদেশে ছুটে আসবেন বলে জানান।

এর আগে দুপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) করোনারি ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (সিআইসিইউ) চিকিৎসাধীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করেন দেবী শেঠী।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে দেবী শেঠীর সঙ্গে ছিলেন বিএসএমএমইউ’র হৃদরোগ বিভাগের অধ্যাপক ডা. এস এম মোস্তফা জামান।

তিনি জানান, অত্যন্ত আন্তরিক পরিবেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেবী শেঠীর সাক্ষাৎ হয়েছে।

মোস্তফা জামান বলেন, গতকাল রাত ১টায় যখন দেবী শেঠীকে আমি প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছার কথা জানিয়ে ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে বাংলাদেশে আসার নিমন্ত্রণ জানাই তখন তিনি সম্ভব হলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করার ইচ্ছা প্রকাশ করেন। তার ইচ্ছার কথা প্রধানমন্ত্রীকে জানালে তিনি সম্মতি দেন। আজ বেলা আনুমানিক ১টার দিকে দেবী শেঠী বিএসএমএমইউতে ওবায়দুল কাদেরকে দেখে সিঙ্গাপুরে পাঠানোর পক্ষে মত দেন। এরপর বিকেলে ওবায়দুল কাদেরকে সিঙ্গাপুরের উদ্দেশে নেয়া হয়।

সাক্ষাৎকালে প্রধানমন্ত্রী দেবী শেঠীকে বলেন, তার জন্য হোটেল বুকিং করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী তাকে বাংলাদেশে দু-একদিন থেকে বেড়িয়ে দেখার কথা জানান।

ডা. জামান আরও জানান, স্বল্প সময়ের জন্য বাংলাদেশে এসে এবং প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে বিকেলেই ভারতে ফিরে যাচ্ছেন ডা. শেঠী।

তিনি জানান, যতদূর জেনেছি ডা. শেঠী নিজস্ব বিমান ফেলকন ২০০০ নিয়ে এসেছেন। তিনি দেবী শেঠীকে বিমানবন্দরে উঠিয়ে দিতে রওনা হয়েছেন। বিকেলেই তার ভারতে ফিরে যাওয়ার কথা রয়েছে।

প্রসঙ্গত, রোববার (৩ মার্চ) সকালে শ্বাসকষ্ট নিয়ে বিএসএমএমইউর আইসিইউতে ভর্তির পর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ম্যাসিভ হার্ট অ্যাটাক হয়। আইসিইউতে চিকিৎসা দিয়ে অবস্থা কিছুটা স্থিতিশীল হলে তার এনজিওগ্রাম করে হৃদপিণ্ডের রক্তনালীতে তিনটি ব্লক ধরা পড়ে।

এ সময় রক্তনালীতে রিং (স্ট্যান্টিং) বসানো হয়। এরপর উচ্চমাত্রার ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপের কারণে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকে। তার চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর থেকে গতকালই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা আসেন।

আজ ভারত থেকে আসেন উপমহাদেশের প্রখ্যাত হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. দেবী শেঠী। দেবী শেঠীর পরামর্শে উন্নত চিকিৎসার জন্য ওবায়দুল কাদেরকে নিয়ে এয়ার অ্যাম্বুলেন্স সিঙ্গাপুরের উদ্দেশে রওনা হয়েছে।

এমইউ/এনডিএস/এমএস

টাইমলাইন  

আপনার মতামত লিখুন :


আরও পড়ুন