কুমিল্লায় ছেলেধরা সন্দেহে নারীসহ ৪ জনকে গণপিটুনি

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কুমিল্লা
প্রকাশিত: ০৬:২১ পিএম, ২১ জুলাই ২০১৯
ফাইল ছবি

কুমিল্লায় ছেলেধরা সন্দেহে এক নারীসহ চারজনকে গণপিটুনি দিয়েছে স্থানীয়রা। রোববার দুপুরে জেলার আদর্শ সদর উপজেলার আমড়াতলী ইউনিয়নের দুতিয়াদিঘীরপাড় ও মাঝিগাছা এলাকায় পৃথক এ ঘটনা ঘটে। পরে স্থানীয়রা তাদেরকে পুলিশে সোপর্দ করে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রোববার দুপুর ১২টার দিকে এক নারীসহ তিনজন আদর্শ সদর উপজেলার আমড়াতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে যায়। এ সময় তারা চৈতী নামের ওই বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ডাক দেয়। এতে ওই শিশুটি ভয় পেয়ে ‘ছেলেধরা’ বলে চিৎকার শুরু করলে এলাকাবাসী তাদের আটক করে গণপিটুনি দেয়। এতে তারা গুরুতর আহত হন। খবর পেয়ে কোতয়ালি মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের উদ্ধার করে।

উদ্ধাররা হলেন জেলার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার বেজুরা গ্রামের জয়নাল আবেদীনের ছেলে আনোয়ার হোসেন (২৮), বরুড়া উপজেলার হরিপুর গ্রামের ফজর আলীর ছেলে আব্দুস সালাম (৭৫) এবং আব্দুস সালামের স্ত্রী রত্না বেগম (৪৫)।

অন্যাদিকে মাঝিগাছা এলাকা থেকে আরিফ হোসেন (৩০) নামে এক ফেরিওয়ালাকে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে স্থানীয় লোকজন। আরিফ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার কসবা উপজেলার কোনাকাটা নয়নপুর গ্রামের আব্দুন নূর স্বর্ণকারের ছেলে।

কুমিল্লার পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম জানান, আটকদের বিষয়ে খোঁজ-খবর নেয়া হচ্ছে। তিনি সাধারণ জনগণকে এ বিষয়ে সতর্ক থাকার আহ্বান জানান।

মো. কামাল উদ্দিন/এমবিআর/জেআইএম

টাইমলাইন