ছেলেধরা সন্দেহ হলে তাৎক্ষণিক পুলিশে খবর দিন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কিশোরগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৮:৩১ পিএম, ২৫ জুলাই ২০১৯

কিশোরগঞ্জে গুজব রটনাকারীদের ধরতে পুলিশের পাশাপাশি মাঠে কাজ করছে বিভিন্ন গোয়েন্দা বাহিনী। গুজবে কান না দিতে মানুষকে সচেতন করতে জেলার ১৩টি উপজেলায় বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ক্লাসে ক্লাসে গিয়ে সচেতনতামূলক কাজ করছে পুলিশ বাহিনী। এলাকায় মাইকিং, লিফলেট বিতরণসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক প্রচারণা চালানো হচ্ছে। এ ছাড়া ইসলামী ফাউন্ডেশন ও জেলা তথ্য অফিস নানাভাবে গণসচেতনতা কর্মসূচি চালাচ্ছে।

বৃহস্পতিবার ছেলেধরা গুজব ও গণপিটুনি প্রতিরোধে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে কিশোরগঞ্জের পুলিশ সুপার মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ এসব কথা জানান

তিনি বলেন, কিশোরগঞ্জের কোথাও কোনো ছেলে ধরার ঘটনা ঘটেনি। গুজব ছড়িয়ে গণপিটুনি দিয়ে মৃত্যু ঘটানো ফৌজদারি অপরাধ। ছেলেধরা সন্দেহ হলে তাৎক্ষণিক পুলিশকে সংবাদ দিন এবং গণপিটুনি না দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দিন।

পুলিশ সুপার বলেন, গণপিটুনির ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হচ্ছে। গুজবে বিভ্রান্ত হয়ে ছেলেধরা সন্দেহে কাউকে গণপিটুনি দিয়ে আইন নিজের হাতে তুলে না নেয়ার আহ্বান জানান তিনি।

এ পর্যন্ত কিশোরগঞ্জে ছেলেধরা সন্দেহে আটক নয়জনকে পুলিশ উদ্ধার করেছে বলে প্রেস ব্রিফিংয়ে জানানো হয়। তাদের বেশির ভাগই পাগল ও প্রতিবন্ধী। কেউই অপরাধের সঙ্গে জড়িত নয়।

প্রেস ব্রিফিংয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মো. মিজানুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) অনির্বাণ চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

নূর মোহাম্মদ/আরএআর/এমকেএইচ

টাইমলাইন