ভারত-পাকিস্তান উত্তেজনায় চীনের ‘গভীর উদ্বেগ’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৩৭ এএম, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে যে উত্তেজনা শুরু হয়েছে তাতে চীনের পক্ষে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে দেশটির এক জ্যেষ্ঠ কূটনৈতিক। গত বুধবার দুই দেশ একে অপরের বিমান ভূপাতিত করার দাবি করার পর উত্তেজনায় নতুন মাত্রা যুক্ত হওয়ায় বিবৃতি দিয়ে এ উদ্বেগের কথা জানালো দেশটি। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ নিয়ে একটি বিবৃতি প্রকাশ করেছে। বিবৃতিতে বলা হচ্ছে, পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেহমুদ কুরেশির সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলার সময় এই উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন চীনের স্টেট কাউন্সিলর ও দেশটির জ্যেষ্ঠ কূটনীতিবিদ ওয়াং ঝি।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেহমুদ কুরেশি চীনা কূটনৈতিক ওয়াং ঝিকে ভারত পাকিস্তান উত্তেজনার সর্বশেষ অবস্থা জানানোর জন্য টেলিফোন করেন। এ সময় কুরেশি আশা প্রকাশ করেন, বরাবরের মতো চীন এই উত্তেজনা কমাতে ‘গঠণমূলক ভূমিকা’ পালন করবে।

>> পাক-ভারত উত্তেজনার লাইভ আপডেট

চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে প্রকাশিত ওই বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, ভারত ও পাকিস্তান উভয়েই এই উত্তেজনাকে আর না বাড়িয়ে সংযত হবেন বলে আশা প্রকাশ করেছেন ওয়াং ঝি। তাছাড়া প্রতিটি দেশের সার্বভৌমত্ব ও অখণ্ডতাকে সম্মান জানানোর আহ্বান জানান তিনি।

মঙ্গলবার পাকিস্তানে ঢুকে বিমান হামলা চালায় ভারত। গত ১৪ ফেব্রুয়ারি কাশ্মীরের পুরওয়ামায় পাকিস্তানিভিত্তিক সশস্ত্র জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মোহাম্মদ আত্মঘাতী বোমান হামলার ‘প্রতিশোধ’ ভারতের এই হামলা। ১৯৭১ সালের পর প্রথমবারের মতো পাকিস্তান সীমান্তে ঢুকে হামলা চালিয়েছে ভারত।

ভারতের হামলার পর পাকিস্তান পাল্টা প্রতিরোধের অংশ হিসেবে ভারতের দুটি বিমান কাশ্মীরে হামলা চালিয়ে বারতের দুটি যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করেছে পাকিস্তান। তারা ভারতের একজন পাইলটকেও আটক করেছে। পাল্টাপাল্টি হামলার কারণে দুই দেশের মধ্যে চলমান উত্তেজনা নিয়ে এমন বিবৃতি দিল তাদের প্রতিবেশী চীন।

এসএ/জেআইএম

টাইমলাইন