প্রতিশ্রুতি রক্ষা করলেন ইমরান, পাইলটকে হস্তান্তর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:৩১ পিএম, ০১ মার্চ ২০১৯

প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের প্রতিশ্রুতি পূরণে আটক ভারতীয় বিমান বাহিনীর পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে ভারতের কর্মকর্তাদের কাছে হস্তান্তর করেছে পাকিস্তান। বুধবার পাক অধিকৃত কাশ্মীরের আকাশে ভারতীয় যুদ্ধবিমান নিয়ে অনুপ্রবেশ করেছিলেন এই পাইলট। পাকিস্তানে সেনাবাহিনীর গুলিতে ভূপাতিত হয় ভারতীয় যুদ্ধবিমান মিগ-২১।

ওই যুদ্ধবিমানের ভেতর থেকে পাইলট অভিনন্দনকে বের করে আনেন উত্তেজিত কাশ্মীরিরা। পরে তাকে উদ্ধার করে নিজেদের জিম্মায় নেয় পাকিস্তান সেনাবাহিনী। এ নিয়ে দুই দেশের চরম উত্তেজনার মাঝে বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের পার্লামেন্টে আয়োজিত যৌথ অধিবেশনে আটক ভারতীয় পাইলটকে শুক্রবার মুক্তি দেয়ার ঘোষণা দেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

শুক্রবার স্থানীয় সময় বিকেল পাঁচটার দিকে পাকিস্তানের পূর্বাঞ্চলের শহর লাহোর থেকে ভারতীয় বিমান বাহিনীর উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে ওয়াগাহ সীমান্তে নিয়ে যায় সেনাবাহিনীর একটি গাড়িবহর। পাকিস্তানে ধরা পড়া এই পাইলটকে স্বাগত জানাতে আট্টারি-ওয়াগাহ সীমান্তের ভারতীয় অংশে হাজার হাজার ভারতীয় জমায়েত হন।

আরও পড়ুন : ভারতের অভিযানে মারা গেছে শুধু একটি কাক, দাবি স্থানীয়দের

এসময় তাদের হাতে দেখা যায় দেশটির জাতীয় পতাকা। অনেকের হাতে ফুলে তোড়া; তারা অভিনন্দনকে স্বাগত জানিয়ে স্লোগানও দেন। অভিনন্দনকে অভিনন্দন স্লোগানে মুখরিত হয় ওয়াগাহ সীমান্ত। এর আগে ভারতীয় বিমান বাহিনীর এই কমান্ডারকে ওয়াগাহ সীমান্তে মেডিক্যাল চেকআপ করা হয়।

পরে সেখান ইমিগ্রিশনের সব আনুষ্ঠানিকতা শেষে ভারতীয় বিমানবাহিনীর কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে গঠিত হাই কমিশনের প্রতিনিধি দলের কাছে অভিনন্দনকে হস্তান্তর করে পাকিস্তানি কর্মকর্তারা। অভিনন্দনের বাবা দেশটির বিমানবাহিনীর কমান্ডার ও মা বিমানের বিশেষ একটি ফ্লাইটে করে পাক-ভারতের এই সীমান্তে যান। এসময় বিমানের ক্রুরা দাঁড়িয়ে তাদের শ্রদ্ধা জানান।

বৃহস্পতিবার পার্লামেন্টে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেন, শান্তির ইঙ্গিত হিসেবে আমরা অভিনন্দনকে শুক্রবার মুক্তি দেব। আলোচনার মাধ্যমেই সব ধরনের সঙ্কটের সমাধান করা উচিত। চলমান উত্তেজনা প্রশমনে এবং শান্তির ইঙ্গিত হিসেবে ভারতীয় পাইলটকে মুক্তির ঘোষণাকে যেন দুর্বলতা হিসেবে না ভাবা হয়; সেব্যাপারেও সতর্ক করে দেন পাক প্রধানমন্ত্রী।

আরও পড়ুন : ইমরান খানকে শান্তির নোবেল দেয়ার দাবিতে পাকিস্তানে হ্যাশট্যাগ ঝড়

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় ভারতীয় আধা-সামরিক বাহিনীর গাড়ি বহরে জঙ্গি হামলায় ৪০ জওয়ানের প্রাণহানির পর পাক-অধিকৃত কাশ্মীরে যুদ্ধবিমান থেকে অভিযান চালায় ভারতীয় বিমানবাহিনী। এই অভিযানের একদিন পর বুধবার দুই দেশের আকাশসীমায় পাল্টাপাল্টি অনুপ্রবেশের ঘটনা ঘটে।

পাকিস্তান বলছে, তারা ভারতীয় বিমানবাহিনীর দুটি বিমান ভূপাতিত এবং একজন পাইলটকে আটক করেছে। ভারতের দাবি, তারাও পাকিস্তানের একটি যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করেছে। ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় প্রথমে অস্বীকার করলেও পরে জানায়, পাকিস্তানি অনুপ্রবেশ ঠেকানোর সময় ভারতীয় একটি মিগ-২১ যুদ্ধবিমান ও পাইলট নিখোঁজ রয়েছে।

পাইলট অভিনন্দন জানতেন না বিমানটি কোন দেশের ভূখণ্ডে ভূপাতিত হচ্ছে। তবে সেই সময় উত্তেজিত জনতা দেখে তিনি আতঙ্ক তৈরির জন্য পিস্তল থেকে গুলিবর্ষণ করেন।

অভিনন্দনকে আটকের খবর প্রকাশের পর পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ভারতকে আলোচনায় বসার আহ্বান জানান। পরে দেশটির পার্লামেন্টে যৌথ এক অধিবেশনে শান্তিপূর্ণ আবহ তৈরির লক্ষ্যে আটক পাইলটকে ভারতে ফেরত পাঠানোর ঘোষণা দেন ইমরান।

সূত্র : রাশিয়া ট্যুডে।  

এসআইএস/এমকেএইচ

টাইমলাইন