যুদ্ধ শুরু হলে কারো হাতেই নিয়ন্ত্রণ থাকবে না : হুঁশিয়ারি ইমরানের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:৫৩ পিএম, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

চলমান পাক-ভারত উত্তেজনার জেরে জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, পৃথিবীতে যতগুলো বড় যুদ্ধ হয়েছে; তার সবগুলোই কার্যত ভুল হিসাব-নিকেশের ফল। তবে এই ভুল পথে না এগিয়ে পারমাণবিক অস্ত্রধারী প্রতিবেশি দুই দেশের মাঝে শান্তি আলোচনায় বসা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

পাক অধিকৃত কাশ্মীরে জঙ্গিগোষ্ঠী জয়েশ-ই-মোহাম্মদের ঘাঁটিতে ভারতীয় বিমান বাহিনীর অভিযানের জবাবে বুধবার ভারতীয় দুটি যুদ্ধবিমানে গুলি চালিয়ে ভূপাতিত করার জেরে ক্রমবর্ধমান উত্তেজনার মাঝে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিয়েছেন পাকিস্তানের এই প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেছেন, বিশ্বে যতগুলো বড় যুদ্ধ হয়েছে তার পেছনে ছিল ভুল হিসেব-নিকেশ। হিটলার কখনো ভাবেননি যে যুদ্ধ এত বছর ধরে চলবে। আমেরিকানরা কখনো কল্পনা করেন নাই যে, ভিয়েতনাম এবং আফগানিস্তান যুদ্ধ দশকের পর দশক ধরে চলবে।

ইমরান খান বলেন, আমাদের উভয় দেশের হাতেই পারমাণবিক অস্ত্র রয়েছে। সুতরাং আমাদের আরো দায়িত্বশীল হওয়া উচিত। সংঘাত যদি শুরু হয়, তাহলে পরিস্থিতির নিয়ন্ত্রণ আমার হাতেও যেমন থাকবে না, তেমনই নরেন্দ্র মোদির হাতেও থাকবে না।

ইমরান বলেন, গত ১৪ ফেব্রুয়ারিতে কাশ্মীরের পুলওয়ামায় নিরাপত্তা বাহিনীর গাড়িবহরে হামলার ঘটনায় তিনি ভারতকে তদন্তকাজে সহায়তার প্রস্তাব দিয়েছিলেন। আমরা ভারতের সঙ্গে কথা বলেছিলাম। তাদের বলা হয়েছিল যদি একতরফা কোনো পদক্ষেপ নেয়া হয়, তাহলে তার জবাব দিতে বাধ্য হবে পাকিস্তান; সেটা যাই হোক না কেন।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর ইতিবাচক এই ভাষণের প্রশংসা করছেন দেশটির বিশ্লেষক ও বিরোধী দলীয় রাজনীতিকরা। বিরোধী দল পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজের সিন্ধ প্রদেশের গভর্নর জুবায়ের ওমর আশাপ্রকাশ করে বলেন, ভারত একটি ইতিবাচক বার্তা পেল। তিনি বলেন, আমার প্রত্যাশা, তারা (ভারত) একটি বার্তা পেয়েছে। সেটি হচ্ছে আমাদের ওপর ক্ষমতা প্রদর্শন এত সহজ নয়।

সূত্র : বিবিসি, ডন।

এসআইএস/এমকেএইচ

টাইমলাইন  

আপনার মতামত লিখুন :