আমি নোবেল শান্তি পুরস্কারের যোগ্য নই : ইমরান খান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:১৯ পিএম, ০৪ মার্চ ২০১৯

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, তিনি নোবেল শান্তি পুরস্কার পাওয়ার যোগ্য নন। পাক-ভারত চলমান উত্তেজনা প্রশমনে ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশ তৈরিতে আটক ভারতীয় পাইলটকে মুক্তি দেয়ার পর পাকিস্তানের এই প্রধানমন্ত্রীকে শান্তির নোবেল দেয়ার দাবিতে অনলাইনে একটি পিটিশন চালু করেছেন পাকিস্তানিরা। ইমরানকে নোবেল দেয়ার দাবিতে টুইটারেও হ্যাশট্যাগ ঝড় তুলেছেন তারা।

এই দাবি ওঠার পর সোমবার এক টুইট বার্তায় ইমরান খান বলেন, তিনি শান্তির নোবেল পুরস্কার জেতার যোগ্য নন। কাশ্মীরি জনগণের ইচ্ছা অনুযায়ী যিনি কাশ্মীর সঙ্কট সমাধান করবেন এবং এই অঞ্চলে শান্তি ও মানবিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখবেন; তিনিই নোবেল শান্তি পুরস্কারের যোগ্য।

প্রতিবেশি ভারতের সঙ্গে টান টান উত্তেজনা প্রশমন ও পাইলট অভিনন্দনকে মুক্তি দেয়ার পর অনলাইনে ইমরান খানকে নোবেল শান্তি পুরস্কার দেয়ার দাবিতে চালু হওয়া ওই পিটিশনে এখন পর্যন্ত তিন লাখের বেশি মানুষ স্বাক্ষর করেছেন।

পাকিস্তানে গত বৃহস্পতিবার টুইটারে ইমরান খানকে নোবেল দেয়ার দাবিতে করা টুইট হ্যাশট্যাগ ট্রেন্ডিং হয়। শান্তির ইঙ্গিত হিসেবে আটক ভারতীয় পাইলটকে ছেড়ে দেয়ার ঘোষণার পর টুইটারে ইমরান খানের জন্য নোবেল শান্তি পুরস্কার (#NobelPeaceForImranKhan) হ্যাশট্যাগ ঝড় শুরু হয়।

পাকিস্তান সেনাবাহিনী গুলি চালিয়ে ভারতীয় যুদ্ধবিমান মিগ টোয়েন্টি ওয়ান ভূপাতিত ও বিমানের পাইলট অভিনন্দনকে আটক করে। পরে শুক্রবার ভারতীয় এই পাইলটকে ওয়াগাহ সীমান্ত দিয়ে দেশে ফেরত পাঠায় পাকিস্তান।

অনলাইনে চেইঞ্জডটওআরজিতে এই ক্যাম্পেইন শুরু করা হয়েছে যুক্তরাজ্য ও পাকিস্তান থেকে। এতে এশীয় অঞ্চলে প্রতিকূল সংঘাতপূর্ণ পরিবেশে সংলাপের আহ্বান ও শান্তিপূর্ণ পদক্ষেপের প্রচেষ্টার জন্য ইমরান খানকে আগামী বছরের নোবেল শান্তি পুরস্কারে মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানানো হয়।

সূত্র : এক্সপ্রেস ট্রিবিউন।

এসআইএস/এমকেএইচ

টাইমলাইন  

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]