পাইলটের ‘মুক্তি’ দুর্বলতা হিসেবে ভাববেন না : ইমরান খান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:৪৭ পিএম, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

উত্তেজনা প্রশমনে শান্তির ইঙ্গিত হিসেবে আটক ভারতীয় পাইলটকে মুক্তি দেয়ার ঘোষণার পর পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, ‘উত্তেজনা কমানোর এই পদক্ষেপকে দুর্বলতা হিসেবে বিবেচনা করা উচিত হবে না।’

বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের পার্লামেন্টের যৌথ অধিবেশনে ভারতীয় পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে শুক্রবার ফেরতের ঘোষণা দেয়ার পর এ মন্তব্য করেন তিনি। পাক এই প্রধানমন্ত্রী বলেন, সব সঙ্কটই আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করা উচিত। কারতারপুর করিডর খোলা সত্ত্বেও আমরা ভারতের কোনো সাড়া পাইনি।

‘পুলওয়ামা হামলার ৩০ মিনিটের মধ্যে আমাদের ওপর দায় চাপানো হলো। আমি বলছি না যে, ভারতের কোনো বিষয়ে পাকিস্তানের ভূমিকা আছে, তবে আমি তাদের তথ্য-প্রমাণ শেয়ার করার আহ্বান জানিয়েছিলাম।’

***পাক-ভারত উত্তেজনার লাইভ আপডেট

পাকিস্তানের গণমাধ্যমের প্রশংসা করে তিনি বলেন, ‘ভারতের গণমাধ্যম যুদ্ধের হিস্টিরিয়া তৈরি করেছে। আমাদের গণমাধ্যম একাত্বতা দেখিয়েছে এবং দায়িত্বশীলতার সঙ্গে কাজ করেছে।’ ইমরান খান বলেন, আমরা বুঝতে পারছিলাম যে, তারা (ভারত) কিছু করবে। কিন্তু আমাদের অভিযান চালানোর উদ্দেশ্য ছিল শক্তি প্রদর্শন এবং আমরা সেটি করেছি।

‘আমরা ভারতের কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটাতে চাইনি। সেজন্য দায়িত্বশীল উপায়ে কাজ করতে চেয়েছিলাম। আমি আগেই বলেছি, ভারত যদি কিছু করে, তাহলে আমরা তার জবাব দেব।’ তিনি বলেন, ভারত জাতিসংঘের আইন লঙ্ঘন করেছে। তারা আক্রমণ চালানোর দু’দিন পর আজ আমাদের কাছে কিছু নথি দিয়েছে।

আরও পড়ুন : ভারতীয় পাইলটকে মুক্তি দেয়ার ঘোষণা ইমরান খানের

পাক এই প্রধানমন্ত্রী বলেন, ভুল হিসেবের ফলে অনেক দেশ ধ্বংস হয়েছে। যুদ্ধ কোনো সমাধান নয়। ভারত যদি কোনো পদক্ষেপ নেয়, তাহলে আমাদের প্রতিশোধ নিতে হবে। কাশ্মীরের বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে তিনি বলেন, এক দিক থেকে কাশ্মীরি নেতারা বিচ্ছিন্ন হতে চাননি। কিন্তু ভারতের নৃশংসতার কারণে আজ তারা সবাই স্বাধীনতা চান।

কাশ্মীরের সব ঘটনার জন্য পাকিস্তানকে দায়ী করার এই প্রবণতা কত দিন পর্যন্ত চলবে, প্রশ্ন ইমরান খানের।তিনি বলেন কাশ্মীর ইস্যু অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সেখানকার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে যেতে দেয়া উচিত নয়। নতুবা পাকিস্তান প্রতিশোধ নেবে।

সূত্র : জিও টিভি।

এসআইএস/এমএস

টাইমলাইন  

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]