লক্ষ্মীপুরে রিফাত হত্যাকারীদের বিচার দাবি

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি লক্ষ্মীপুর
প্রকাশিত: ০৮:৩৮ পিএম, ২৯ জুন ২০১৯

বরগুনায় স্ত্রীর সামনে প্রকাশ্য দিবালোকে রিফাত শরীফ নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা এবং লক্ষ্মীপুরে স্ত্রী জহুরা বেগমের দেয়া গরম তেলে স্বামী দিদার হোসেন নামে এক ব্যক্তি ঝলসে আহত ও পরে মারা যাওয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছেন নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ। তারা এ দুই ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

শনিবার (২৯জুন) বিকেলে লক্ষ্মীপুর প্রেস ক্লাবের সামনে মানবাধিকার উন্নয়ন ফোরাম, আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সাংবাদিক সংস্থা, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন দ্রুবতারা, বিকেবি ক্লাব, অনলাইন অ্যাকটিভেটিস ফোরাম, অগ্রযাত্রা ফাউন্ডেশন ও প্রেরণা মডিভেশনের উদ্যোগে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

Lakshmipur-Pic-2

এ সময় বক্তব্য রাখেন লক্ষ্মীপুর মানবাধিকার উন্নয়ন ফোরামের আহ্বায়ক মমতাজ বেগম, আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সাংবাদিক সংস্থার লক্ষ্মীপুর জেলা সভাপতি মিজানুর রহমান, সমন্বয়কারী নুর মোহাম্মদ, বিকেবি ক্লাবের সভাপতি ইসমাইল খান সুজন, অগ্রযাত্রা ফাউন্ডেশনের পরিচালক সৈয়দ নুর হোসেন ফাহাদ ও প্রেরণা মডিভেশনের সভাপতি নাহিদ আলম প্রমুখ।

তারা বলেন, দেশে আজ মানবতা নেই। দেশব্যাপী দুঃসাহসিক হত্যাকাণ্ডসহ অপরাধ প্রবণতা বেড়েই চলেছে। এসব ঘটনা বিচার কাজে তেমন অগ্রগতি নেই। গ্রেফতার হলেও জামিনে মুক্ত হয়ে ফের অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে লিপ্ত হচ্ছে অপরাধীরা।

Lakshmipur-Pic-2

বক্তারা লক্ষ্মীপুরে স্বামী দিদারকে গরম তেল দিয়ে ঝলসে দেয়া পাষণ্ড স্ত্রী জহুরা বেগম এবং বরগুনায় রিফাতকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যায় জড়িতদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবি জানান।

প্রসঙ্গত, গত ১৭ জুন ভোরে লক্ষ্মীপুর সরকারি কলেজ রোড এলাকার একটি ভাড়া বাসায় ঘুমন্ত স্বামী দিদার হোসেনের শরীর ঝলসে দেন স্ত্রী জহুরা বেগম। ১০ দিন পর তিনি মারা যান। আর গত ২৬ জুন সকালে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে শাহ নেওয়াজ রিফাত শরীফকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

কাজল কায়েস/এমএমজেড/এমকেএইচ

টাইমলাইন  

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]