মিন্নি অনেক ভালো আছেন : চিকিৎসক

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি বরগুনা
প্রকাশিত: ০৩:২৯ পিএম, ২৬ জুলাই ২০১৯
ফাইল ছবি

‘মিন্নি তেমন কোনো গুরুতর অসুস্থ নয়, একটু শারীরিক ব্যথা-বেদনা থাকতে পারে। এত বড় একটা ঘটনা ঘটে গেল, তাই তিনি মানসিকভাবে একটু চাপে আছেন। ভয়ের কিছু নেই, দুশ্চিন্তার কিছু নেই। তিনি অনেক ভালো আছেন।’

বহুল আলোচিত বরগুনার রিফাত শরীফ হত্যা মামলার প্রধান সাক্ষী থেকে আসামি বনে যাওয়া রিফাতের স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নির চিকিৎসায় শুক্রবার সকালে কারাগারে যাওয়া বরগুনার সিভিল সার্জনের প্রতিনিধি মেডিকেল অফিসার ডা. হাবিবুর রহমান এসব কথা বলেন।

মিন্নিকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করা হয়েছে কি-না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নর জবাবে ডা. হাবিবুর রহমান বলেন, না তেমন কোনো কিছু দেখা যায়নি। তাছাড়া মিন্নিও তেমন কিছুই বলেননি। তবে তার একটু ঘুম কম হচ্ছে। সকালে যেহেতু জেলখানার কিছু নিয়ম-কানুন অছে সেহেতু সকাল বেলা তিনি ঘুমাতে পারেন না। আমরা কারা কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ করেছি উনি যতটুকু রেস্ট নিতে চান যেন তা নিতে পারেন। কারা কর্তৃপক্ষও সেটা দেখবে বলে জানিয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আমাদের সঙ্গে নারী ডাক্তারও ছিরেন। মিন্নির পরিবারের দুশ্চিন্তার কোনো কারণ নেই।

মিন্নিকে উন্নত চিকিৎসা দেয়ার দাবির বিষয়ে ডা. হাবিবুর রহমান বলেন, আমাদের কাছে তেমনটি মনে হয়নি।

প্রসঙ্গত, স্বামী রিফাত শরীফ হত্যা মামলা জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার আয়শা সিদ্দিকা মিন্নি বর্তমানে বরগুনা জেলা কারাগারে রয়েছেন। গত ১৯ জুলাই শুক্রবার রিফাত হত্যায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়ার পর থেকে তিনি কারাগারে রয়েছেন।

কারাগারে যাওয়ার পর মিন্নির সঙ্গে দেখা করেন তার বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোর ও আইনজীবী অ্যাডভোকেট মো. মাহবুবুল বারী আসলাম। তারা উভয়ই দাবি করেন, রিমান্ডে থাকা অবস্থায় পুলিশের নির্যাতনে খুব অসুস্থ হয়ে পড়েছেন মিন্নি। তাই তার চিকিৎসা প্রয়োজন। এছাড়াও পুলিশের শিখিয়ে দেয়া স্বীকারোক্তি আদালতে বলেছেন মিন্নি। তাই এ স্বীকারোক্তি প্রত্যাহার করতে চান তিনি।

মিরাজ/আরএআর/পিআর

টাইমলাইন