দুই পক্ষই প্রক্টরের কথা শুনলেন মানলেন না, তদন্ত কমিটি গঠন

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০২:৩৪ এএম, ০৩ এপ্রিল ২০১৯

‘এখন গভীর রাত। রাত পোহাতে আর বেশি দেরি নেই। তোমাদের দুই পক্ষের অভিযোগ শুনলাম। ইতোমধ্যেই তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠিত হয়েছে। বুধবার সকাল থেকে তদন্ত কমিটি কাজ শুরু করবে। তদন্তে যারাই দোষী সাব্যস্ত হবে তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুরের ওপর ডিম নিক্ষেপ ও হামলার প্রতিবাদে ভিসির বাসভবনের সামনে অবস্থানরত শিক্ষার্থী ও অদূরেই বিক্ষোভরত এসএম হল ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের সঙ্গে ঘণ্টাব্যাপী আলাপ-আলোচনা করে তাদের হলে ফেরার আহ্বান জানান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর গোলাম রাব্বানী।

কিন্তু দুই পক্ষই প্রক্টরের কথা মনোযোগ দিয়ে শুনলেও অনুরোধ রক্ষা করে কেউ হলে ফিরে যাননি। পরে রাত আনুমানিক পৌনে ২টার দিকে প্রক্টর ফিরে যান।

সাধারণ শিক্ষার্থী অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের ব্যানারে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, ছাত্রলীগের অত্যাচার, নিপীড়ন ও নির্যাতনে তাদের দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি এসে ওইসব ঘটনার সঙ্গে জড়িত দোষী ব্যক্তিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আশ্বাস না দিলে তারা আন্দোলন থেকে পিছপা হবেন না।

রাত পোহাতে মাত্র কয়েক ঘণ্টা বাকি তাই তারা রাত জেগে ভিসির জন্য অপেক্ষা করবেন বলে জানান।

অদূরেই অবস্থানরত এসএম হল সংসদের ভিপি ও জিএস অভিযোগ করেন, প্রভোস্ট ও হাউজ টিউটরের অনুমতি ও হল সংসদের ভিপি-জিএসকে অবহিত না করে নুরুল হক নুর মেয়েদের সঙ্গে নিয়ে একজন মাদকাসক্তকে জোরপূর্বক রুমে তুলে দিতে সেখানে গেছেন। তাই তাকে ভিপি হিসেবে আর মানা তাদের পক্ষে সম্ভব নয়।

তারা নুরকে বয়কট ও তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান।

এমইউ/বিএ

টাইমলাইন  

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]