পাকিস্তানের পার্লামেন্টে এমপি-মন্ত্রীর মারামারির চেষ্টা!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:১৫ পিএম, ০৮ আগস্ট ২০১৯

পাকিস্তানের পার্লামেন্টে যৌথ অধিবেশনে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময়ের সময় সংঘাতে জড়ানোর চেষ্টা করেছেন দেশটির সরকারি দলের এক মন্ত্রী ও বিরোধী দল পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজের (পিএমএল-এন) এক সংসদ সদস্য। উত্তপ্ত বাগবিতণ্ডার পর তারা একে অপরকে কিল-ঘুষি মারতে উদ্যত হলে সংসদের অন্য সদস্যরা তাদের থামিয়ে দেন।

গত ৫ আগস্ট কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা ভারতের সংবিধান থেকে বাতিল হয়ে যাওয়ার পর বুধবার পাক পার্লামেন্টে যৌথ অধিবেশন আহ্বান করেন দেশটির রাষ্ট্রপতি।

এ অধিবেশনে পিএমএল-এনের সিনেটর মুশাহিদুল্লা খান ও দেশটির ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের নেতা, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক মন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী একে অপরকে আক্রমণ করে কথার লড়াইয়ে জড়িয়ে পড়েন।

সিনেটের চেয়ারম্যান সাদিক সাঞ্জরানি তাদের এই বাগবিতণ্ডায় হস্তক্ষেপ করে শান্ত হওয়ার আহ্বান জানান। কিন্তু তার এ আহ্বানে সাড়া না দিয়ে উভয়ই পরস্পরকে আক্রমণ অব্যাহত রাখেন। একই সঙ্গে দুজনকেই অসংসদীয় কথা প্রত্যাহার করে নেয়ার আহ্বান জানান তিনি।

বক্তৃতার একপর্যায়ে মন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরীকে ‘ডাব্বু’ বলে ডাকেন সিনেটর মুশাহিদুল্লা খান। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওই সংসদ সদস্যকে তীব্র ভাষায় আক্রমণ করেন চৌধুরী। পরে পার্লামেন্টের ভেতরে একে অপরকে কিল-ঘুষি মারার চেষ্টা করেন এই দুই আইনপ্রণেতা।

এসআইএস/এমকেএইচ

টাইমলাইন