‘কাশ্মীরিরা মুসলিম না হলে বিশ্ব প্রতিক্রিয়া আরও শক্তিশালী হতো’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:৪৫ পিএম, ৩০ আগস্ট ২০১৯

ভারত-নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা কেড়ে নেয়ার ইস্যুতে বিশ্ব নেতাদের ভূমিকায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তিনি বলেছেন, কাশ্মীরিরা মুসলিম না হলে বিশ্ব প্রতিক্রিয়া আরও শক্তিশালী হতো।

আজ শুক্রবার ইসলামাবাদে কাশ্মীর ইস্যুতে এক গণসমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে এমন প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন পাক প্রধানমন্ত্রী।

ইমরান খান বলেন, ‘বিশ্ববাসীর অনেক আগেই কাশ্মীরিদের পাশে দাঁড়ানো উচিত ছিল। কিন্তু এখানে বাধা হলো ধর্ম। দুর্ভাগ্যবশত, মুসলিমরা যখন নির্যাতিত হয় তখন বিশ্ব নীরব থাকে। আজ কাশ্মীরিরা যদি মুসলিম না হতো, তাহলে বিশ্ব প্রতিক্রিয়া আরও বেশি শক্তিশালী হতো।’

কাশ্মীর ইস্যুর মোড় ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে ভারত ‘মিথ্যা যুদ্ধ নাটক’ মঞ্চস্থ করতে চেয়েছিল বলে মন্তব্য করেন পাক ক্রিকেট দলের সাবেক এই অধিনায়ক। তিনি নয়াদিল্লিকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, এমন কিছু হলে পাকিস্তান তার সমুচিত জবাব দেবে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে উদ্দেশ করে ইমরান খান বলেন, ‘নরেন্দ্র মোদি সাহেব, আপনাকে বলতে চাই, এমন কিছু হলে আমরা উচিত জবাব দেব। আমাদের সশস্ত্র বাহিনী প্রস্তুত আছে। সময় হলে তারা জবাব দেবে।’

৫ আগস্ট ভারত সংবিধান থেকে ৩৭০ নম্বর অনুচ্ছেদ তুলে দিয়ে কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করার পর থেকে ভারত-পাকিস্তানের উত্তেজনা তুঙ্গে। কাশ্মীর নিয়ে নয়াদিল্লির পদক্ষেপের পর থেকেই তার বিরোধিতা করছে পাকিস্তান। তারা ভারতের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক অবনমন এবং বাণিজ্যও স্থগিত করেছে। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদসহ আন্তর্জাতিক অঙ্গনে কাশ্মীর ইস্যুকে তুলেছে।

উত্তেজনার মধ্যেই সফলভাবে ভূমি থেকে ভূমিতে আঘাত হানতে সক্ষম ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে ইসলামাবাদ।

সূত্র; এক্সপ্রেস ট্রিবিউন

এসআর/পিআর

টাইমলাইন  

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]