কাশ্মীর নিয়ে আলোচনায় পাকিস্তানে সৌদি-আমিরাতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:১৭ পিএম, ০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯

আজ (বুধবার) পাকিস্তানে সফর করবেন সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল বিন আহমেদ আল জুবেইর এবং আরব আমিরাতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ আবুল্লাহ বিন জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ান। কাশ্মীর নিয়ে ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে চলমান উত্তেজনার মধ্যেই পাকিস্তানে সফর করতে যাচ্ছেন মধ্যপ্রাচ্যের দু'দেশের এই দুই মন্ত্রী।

গালফ নিউজকে মঙ্গলবার পাকিস্তানের পররাষ্ট্র দফতরের এক কর্মকর্তা নিশ্চিত করেছেন যে, একদিনের সফরে ইসলামাবাদে অবস্থান করবেন সৌদির পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল বিন আহমেদ আল জুবেইর এবং আরব আমিরাতের পররাষ্ট্র ও আন্তর্জাতিক সহযোগিতা বিষয়ক মন্ত্রী শেখ আবুল্লাহ বিন জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ান।

এই সফরে তারা প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান, পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশী এবং সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়ার সঙ্গে বৈঠক করবেন বলে জানানো হয়েছে।

গত ৫ আগস্ট ভারতের সংবিধান থেকে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের মাধ্যমে কাশ্মীর থেকে বিশেষ মর্যাদা তুলে নেয়া হয়। এরপর থেকে প্রতিবেশী পাকিস্তানের সঙ্গে নতুন করে উত্তেজনা শুরু হয়েছে। এমন অস্থিরতার মধ্যেই পাকিস্তানে পা রাখছেন সৌদি ও আমিরাতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

ইসলামাবাদে অবস্থিত সৌদি দূতাবাস এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, পাকিস্তানের সঙ্গে সৌদি আরব এবং আমিরাতের মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে। সাম্প্রতিক সময়ে আর্থিক সংকটে রয়েছে পাকিস্তান। দেশটির অর্থনীতির দুরবস্থার মধ্যেই ইসলামাবাদকে কয়েক বিলিয়ন ডলার অর্থ সহায়তা দিয়েছে রিয়াদ। এই বৈঠকে পাকিস্তান-সৌদি এবং পাকিস্তান-আরব আমিরাতের মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক, ওই অঞ্চলের অবস্থা অর্থাৎ আফগানিস্তান এবং বিশেষ করে কাশ্মীরের সাম্প্রতিক অবস্থা নিয়ে আলোচনা করা হবে।

পাকিস্তানের শীর্ষ কর্মকর্তারা বলছেন, সৌদি আরব এবং আরব আমিরাতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের এই গুরুত্বপূর্ণ সফর প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের কূটনৈতিক প্রচেষ্টার ফলাফল। গত সপ্তাহে সৌদির ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান, আবুধাবির ক্রাউন প্রিন্স শেখ মোহাম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ান এবং আরব আমিরাতের সশস্ত্র বাহিনীর ডেপুটি সুপ্রিম কমান্ডারের সঙ্গে টেলিফোনে আলাপ করেছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

এদিকে, পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশী বলেছেন, পাকিস্তান এবং কাশ্মীরের জনগণের দৃষ্টিকোণ থেকে কাশ্মীর ইস্যু তুলে ধরবে ইসলামাবাদ। ভারত ৩৭০ অনুচ্ছেদ তুলে নিয়ে কাশ্মীরে কারফিউ জারি করায় বর্তমানে উপত্যকায় কি পরিস্থিতি বিরাজ করছে তা তুলে ধরা হবে।

টিটিএন/এমকেএইচ

টাইমলাইন