‘কাশ্মীরে সংঘাত চায় কংগ্রেস’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:৫৯ পিএম, ১৯ আগস্ট ২০১৯

অধিকৃত জম্মু-কাশ্মীরে ভারতের প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস সংঘাত চায় উল্লেখ করে দলটির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত থাকার অভিযোগ এনেছেন দেশটির কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং। বিজেপি নেতৃত্বাধীন দেশটির ক্ষমতাসীন সরকারের এই মন্ত্রীর অভিযোগ, কংগ্রেস এই সংঘাত চায় যাতে তাদের ধ্বংসাত্মক অ্যাজেন্ডার বাস্তবায়ন অব্যাহত রাখতে পারে।

জিতেন্দ্র সিং বলেন, বিরোধী দল কংগ্রেস, কাশ্মীরের স্থানীয় রাজনৈতিক দল ন্যাশনাল কনফারেন্স এবং পিপলস ডেমোক্রেটিক পার্টি উপত্যকায় দীর্ঘমেয়াদে সংঘাতের জন্য তৃষ্ণার্ত। দেশটির প্রভাবশালী টেলিভিশন চ্যানেল ইন্ডিয়া ট্যুডেকে দেয়া বিশেষ এক সাক্ষাৎকারে এসব অভিযোগ করেন তিনি।

‘বর্তমানে কাশ্মীরে সবচেয়ে শান্তিপূর্ণ মৌসুম বিরাজ করছে। সেখানে অতীতের মতো রক্তাক্ত সংঘাতের কোনো ঘটনা ঘটেনি এখন। মোদি সরকারের সাফল্যে কংগ্রেস এবং তার মিত্ররা এখন নড়বড়ে হয়ে গেছে। তারা মন থেকে চায় সেখানে (কাশ্মীরে) সহিংসতা হোক; যাতে ধ্বংসাত্মক অ্যাজেন্ডা বাস্তবায়ন করতে পারে।’

কংগ্রেসের জ্যেষ্ঠ নেতা ও রাজ্যসভায় বিরোধী দলীয় নেতা গুলাম নবী আজাদ প্রশ্ন তুলে বলেছেন, মোদি সরকারের দাবি অনুযায়ী, যদি কাশ্মীর উপত্যকা শান্ত থাকে তাহলে কেন সাধারণ মানুষের চলাচলে প্রতিবন্ধকতা তৈরি ও সব ধরনের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে রাখা হয়েছে।

গুলাম নবী আজাদের এই প্রশ্নের জবাবে জিতেন্দ্র সিং বলেন, কাশ্মীর নিয়ে কংগ্রেস নেতা যা বলেছেন, তাতে কারোই বেশি গুরুত্ব দেয়া উচিত নয়। আমি ব্যক্তিগত মন্তব্য ঘৃণা করি। তবে অমরনাথ ভূমি আন্দোলন এমন এক সময় হয়েছিল; যখন গুলাম নবী আজাদ জম্মু-কাশ্মীরের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন। তিনি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন নাই এবং মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছিলেন।

বিরোধীদের আনা অভিযোগের ব্যাপারে কেন্দ্রীয় এই মন্ত্রী বলেন, কাশ্মীরে কড়াকড়ি আরোপ এবারই প্রথম করা হয়নি। কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন সরকারের আমলে সেখানে দীর্ঘ সময় ধরে কারফিউ জারি ছিল।

সূত্র : ইউএনটি।

এসআইএস/এমকেএইচ

টাইমলাইন  

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]